ভারতঃ বিহারে নির্মাণ সংস্থার শিবিরে মাওবাদী হামলা

343670-339001-maoists-2

একটি সড়ক নির্মাণ কোম্পানির শিবিরে হামলা চালাল মাওবাদীরা। গত রাতে বিহারের মুজফ্ফরপুর জেলার কুটনি থানার কমতোল গ্রামের কাছে সংস্থার শিবিরে হানা দিয়ে মাওবাদীরা জেসিবি মেশিন-সহ মোট ২০টি গাড়়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। জেলার পুলিশ সুপার রঞ্জিত্ কুমার মিশ্র বলেন, ‘‘গভীর রাতে প্রায় ১০০ জন মাওবাদীদের একটি দল নির্মাণ কোম্পানির শিবিরে হামলা চালায়। শিবিরের পাহারাদারদের বেঁধে রেখে গাড়়ি ও মেশিনে আগুন ধরিয়ে দেয়। তবে ঘটনায় কোনও প্রাণহানি হয়নি।’’ ঘটনায় জড়়িত সন্দেহে তিন জনকে আটক করে জেরা করা হচ্ছে।

সুত্রঃ http://www.dnaindia.com/india/report-maoists-attack-gammon-india-camp-damage-vehicles-machinery-2092880


বাংলাদেশঃ মোদী বিরোধী বিক্ষোভ কর্মসূচী থেকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চা-র প্রেস বিজ্ঞপ্তি

4

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

ভারতীয় সম্প্রসারণবাদের প্রতিভু নরেন্দ্র মোদির আগমণের প্রতিবাদে বিক্ষোভ কর্মসূচী থেকে নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চার সভাপতি জাফর হোসেন, বিপ্লবী ছাত্রযুব আন্দোলনএর সহআহবায়ক জাকি সুমন এবং জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলএর সদস্য মহিউদ্দিন আহমেদ ও দীপা মল্লিকের গ্রেফতারের প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা

গুজরাটের কসাই, দক্ষিণ এশীয় প্রতিক্রিয়ার মোড়ল, জাতিজনগণের শত্রু নরেন্দ্র মোদির আগমণের প্রতিবাদে গণমোর্চাগণফ্রন্টমুক্তি কাউন্সিলগণমঞ্চের যৌথ উদ্যোগে আজ শনিবার, ৬ জুন ২০১৫ তারিখে, বিকেল সাড়ে চার টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচীর শুরুতেই পুলিশ প্রশাসন কোনো ধরণের বুর্জোয়া গণতান্ত্রিক রীতিনীতির তোয়াক্কা না করেই সভা পণ্ড করে দিতে তৎপর হয়। এক পর্যায়ে নেতৃবৃন্দ পুলিশের সাথে বাকবিতণ্ডায় লিপ্ত হলে সমাবেশ স্থল থেকে গণমোর্চার সভাপতি জাফর হোসেন, বিপ্লবী ছাত্রযুব আন্দোলনএর সহআহবায়ক জাকি সুমন এবং জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলএর সদস্য মহিউদ্দিন আহমেদ ও দীপা মল্লিককে গ্রেফতার করে।

শান্তিপূর্ণ এই সমাবেশে পুলিশী হামলা বর্তমান শাসকশ্রেণী আওয়ামী মহাজোট সরকারের চরম ফ্যাসিবাদী ও ভারতীয় দালালীর এক উজ্জ্বল নমুনা। আমরা, নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চা ও সদস্য সংগঠন বিপ্লবী ছাত্রযুব আন্দোলন, বিপ্লবী শ্রমিক আন্দোলন, কৃষক মুক্তি সংগ্রাম, বিপ্লবী নারী মুক্তি ও আদিবাসী মুক্তি মোর্চা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তির দাবী জানাই।।

—————

বার্তা প্রেরক,

তৌহিদুল ইসলাম

প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক

নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চা

ফোন : ০১৯৫৭৪৮৮১৮৯


বাংলাদেশঃ বামপন্থীদের মোদি বিরোধী বিক্ষোভ , আটক ৭

Bam-Morcha01_thereport24

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে বামপন্থী সংগঠনগুলো বিক্ষোভ সমাবেশ করতে গেলে বাধা দিয়েছে পুলিশ। আগে থেকে ঘোষিত গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা এবং বামপন্থী চার সংগঠনের পৃথক এই বিক্ষোভ সমাবেশ দমনে শনিবার বিকেলে প্রায় দুই শতাধিক পুলিশ প্রেস ক্লাব, সেগুনবাগিচা ও তোপখানা এলাকায় অবস্থান নেয়।

সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা প্রেস ক্লাবের সামনে জমায়েত হতে গেলে অন্তত ৭ নেতাকর্মীকে আটক করে শাহবাগ থানা পুলিশ।

4

আটককৃতরা হলেনবাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (মার্কসবাদী) নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, ঢাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নেত্রী প্রগতি বর্মণ তমা ও ইডেন কলেজ নেত্রী সীমা আফরোজ, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের নেতা আহমদ মহিউদ্দীন ও ছাত্র ফেডারেশনের ঢাকা মহানগরের সহ সভাপতি দীপা মল্লিক এবং নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চার আহ্বায়ক জাফর আহমেদ ও বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের নেতা জাকির সুমন।

তিস্তা নদীসহ অভিন্ন ৫৪ নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়, রামপালের বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলসহ বিভিন্ন দাবিতে শনিবার বিকেলে পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয় সাতটি বাম দলের জোট গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা এবং জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল, নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চা, জাতীয় গণফ্রন্ট ও জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমোর্চা।

2

দুটি জলকামান, একটি রায়ট ও বেশ কয়েকটি প্রিজন ভ্যান দুই শতাধিক পুলিশ প্রেস ক্লাব ও আশপাশের এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। বাম মোর্চার তোপখানা রোডের কার্যালয়ও ঘেরাও করে রেখেছে পুলিশ।

5

রমনা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার শিবলী নোমান বলেন, ‘বামদলগুলো ঝামেলা সৃষ্টি করছে। অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সে জন্য সতর্ক অবস্থান নিয়েছি। মোদির সফর নিরাপদ করতে ও জানমালের নিরাপত্তায় আমরা সতর্ক আছি।’

শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক এসআই শাহাবুল বলেন, ‘এখান থেকে সাতজনকে আটক করেছি। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

3

বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুভ্রাংশু চক্রবর্ত্তী বলেন, ‘সরকারের পেটোয়াবাহিনী জনগণের কণ্ঠরোধ করতে চায়। আমরা প্রতিবাদ জানাতে চেয়েছি। কিন্তু পেটোয়া পুলিশ আমাদের নেতাকর্মীদের আটক করে নিয়ে যাচ্ছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।’

সুত্রঃ http://www.thereport24.com/article/108919/index.html