ভারতঃ খ্রীস্টান সন্ন্যাসিনী ধর্ষণ ও ছত্তিসগড়ে মানব পাচারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে মাওবাদীরা

maoists-kerala-forests.jpg.image_.784.410

রায়পুরঃ রায়পুরে খ্রীস্টান সন্ন্যাসিনী ধর্ষিত হবার ঘটনা এবং ছত্তিসগড়ের আদিবাসী এলাকাগুলোতে মানব পাচারের ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ার ঘটনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সামিল হতে মানবাধিকার সংগঠনগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কমিউনিস্ট পার্টি অফ ইন্ডিয়া (মাওবাদী)।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে সিপিআই (মাওবাদী) এর মুখপাত্র গুদসা উসেন্দি বলেন, রাজ্যের রাজধানীতে খ্রীস্টান সন্ন্যাসিনী ধর্ষিত হবার ঘটনা ও একে ধামাচাপা দেয়ার প্রচেষ্টার প্রতি তীব্র নিন্দা প্রকাশ করছে তার সংগঠন। বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়, বিজেপির শাসনামলে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা ও জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত করার ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে কেন্দ্রে এবং রাজ্যে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, নারীদের উপর অত্যাচার বৃদ্ধি পেয়েছে বলে UPA সরকারকে দোষারোপ করে আসছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অথচ এই সমস্ত ঘটনায় তিনি নিরব।

মানব পাচারের কথা উল্লেখ করে আদিবাসী এলাকায় এই পাচার ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে একত্রে লড়াই ও প্রতিরোধ গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকল প্রগতিশীল সংগঠনের প্রতি আহ্বান জানান উসেন্দি।

সূত্রঃ

http://timesofindia.indiatimes.com/city/raipur/Maoists-condemn-nun-rape-human-trafficking-in-Chhattisgarh/articleshow/47844351.cms


ভারতঃ ১লা জুলাই থেকে প্রতিবাদ সপ্তাহ পালনের ডাক দিয়েছে মাওবাদীরা

Indian-Maoists

পেদেরু (বিশাখাপত্তম): পুলিশের ভুয়া এনকাউন্টার, অত্যাচার, গ্রেফতার, হয়রানি এবং ভুয়া আত্মসমর্পণের বিরুদ্ধে অসম্মতি প্রকাশের ভাষা হিসেবে জনগণের প্রতি ১লা জুলাই থেকে ৭ই জুলাই পর্যন্ত প্রতিবাদ সপ্তাহ পালনের আহ্বান জানিয়েছে সিপিআই (মাওবাদী)। মালকানগারি-বিশাখা-কোরাপুট বিভাগীয় কমিটির সম্পাদক ভেনু, সকল চাকুরীজীবী, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের প্রতি ৬ ও ৭ জুলাই বিভাগীয় বন্ধ পালনের আহ্বান জানিয়েছেন। সিপিআই (মাওবাদী) এর নামে প্রকাশিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ভেনু বলেন, পুলিশ ভুয়া বন্দুকযুদ্ধ চালাচ্ছে, নারীদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে, গ্রামবাসীদের সম্পদ লুট করছে, বেআইনী গ্রেফতার চালাচ্ছে ও গ্রামবাসীদের জেল হাজতে ঢুকাচ্ছে।

তিনি বলেন, কয়েক সপ্তাহ পর যারা আত্মসমর্পণ করছে তাদেরকে মাওবাদী হিসেবে উপস্থাপন করা হচ্ছে ও তাদেরকে মাওবাদীদের বিরুদ্ধে বিবৃতি দিতে বাধ্য করা হচ্ছে। তিনি বলেন সাম্প্রতিক সময়ে বইতিলি ও কিল্লামকতা থেকে প্রায় ২০জন গ্রামবাসীকে পুলিশ তাদের হেফাজতে নিয়ে যায়, তাদের উপর অত্যাচার চালায় ও তাদেরকে আত্মসমর্পণকারী মাওবাদী হিসেবে উপস্থাপন করে। তিনি বিশাখা রেঞ্জের ডিআইজি রবি চন্দ্র ও এসপি কয়া প্রভীনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেছেন, আত্মসমর্পণগুলো যে প্রকৃত সেটা তারা প্রমাণ করে দেখাক। ভেনু আরো বলেন, “পুলিশের এইসব বেআইনী কর্মকাণ্ড জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে সাহায্য করবে এবং তাদেরকে বিপ্লবী পথে নিয়ে যাবে।” এইসব বেআইনী কর্মকাণ্ডের প্রতি নিন্দা জানিয়ে প্রতিবাদ সপ্তাহকে সমর্থন জানাতে বুদ্ধিজীবী ও আদিবাসীদের প্রতি আহ্বান জানান মাওবাদী নেতা ভেনু। ইতোমধ্যে, গত মঙ্গলবার পেদাবয়ালু মণ্ডলের লিঙ্গেতি পঞ্চায়েতের ময়ালাগুম্মি গ্রামের কাছে রাস্তা নির্মাণের কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদিতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে মাওবাদীরা। ঘটনাস্থলে তারা উড়িয়া ভাষায় লেখা একটি প্রেস নোট ফেলে গেছে যাতে লেখা ছিল পুলিশ ভুয়া এনকাউন্টার চালাচ্ছে এবং বেআইনীভাবে নিরীহ গ্রামবাসীদের গ্রেফতার করছে। বৃহস্পতিবার বইতিলি, জি মদুগুলা মন্ডল ও পেদাবয়ালু মণ্ডল এলাকায় প্রচুর পরিমাণে ব্যানার পাওয়া যায়।

সূত্রঃ

http://timesofindia.indiatimes.com/city/visakhapatnam/Maoists-call-for-protest-week-from-July-1/articleshow/47823354.cms