ভারতঃ বিহারে গ্রেফতার মাওবাদী নেতা গুলাম মুস্তফা

maoist-655x360

শেওহর: মাওবাদীদের এক বড় নেতাকে গ্রেফতার করল পুলিশ। দীর্ঘদিন থেকেই বিহারে মাওবাদী কার্যকলাপের দায়িত্ব ছিল তাঁর উপরে। পুলিশ সূত্রে খবর, বিহারের শেওহর জেলার তিরিয়ানি পুলিশ স্টেশনের এক গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে গুলাম মুস্তফা নামের এক মাওবাদীকে। পুলিশ ইন চার্জ এ কে সিং জানিয়েছেন, আগাম পাওয়া খবরের ভিত্তিতে তিরিয়ানির চাপরা গ্রামে অভিযান চালিয়েছিল পুলিশ। সেই সময়ই গ্রেফতার হয় গুলাম। তার কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে আগ্নেয়াস্ত্র ও ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়, বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের মতে, মুস্তাফার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন থেকেই বিহার সহ অন্যান্য রাজ্যে মাওবাদী কার্যকলাপ ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে।

সূত্রঃ http://www.bengali.kolkata24x7.com/maoist-operative-held-in-bihars-naxal-hit-sheohar.html

Advertisements

বিপ্লবী চলচ্চিত্রঃ ‘Guerrilla Girl/গেরিলা তরুণী’

গেরিলা তরুণী‘ হচ্ছে Frank Piasechi Poulsen পরিচালিত একটি তথ্যচিত্র। ইসাবেল নামে এক তরুণীর বিপ্লবী জীবনের গল্প নিয়ে এটি নির্মিত, যিনি কলম্বিয়ার বৃহত্তম মার্কসবাদী গেরিলা দল দি রেভ্যুলেশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়া(ফার্ক)/The Revolutionary Armed Forces of Colombia – People’s Army-(FARC-EP) এ যোগ দিয়ে একজন গেরিলা সৈনিক হিসেবে তার প্রশিক্ষণ শুরু করেন। কিভাবে এক শহুরে তরুণী বিপ্লবের টানে নিজেকে কঠোর সামরিক প্রশিক্ষণ ও আদিম জীবন অবস্থার সাথে মানিয়ে নিয়ে তার বৈপ্লবিক দায়িত্ব পালন করেন- তা নিয়েই এই ছবিটির গল্প।

download

সংক্ষেপে ‘ফার্ক’

১৯৬৪ সালে গঠিত কলম্বিয়ার কমিউনিস্ট পার্টির (Partido Comunista Colombiano, PCC) সশস্ত্র শাখা হিসেবে দি রেভ্যুলেশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়া(ফার্ক) তার সংগ্রাম শুরু করে।

১৯৬৪ সাল থেকে বিপ্লবী সশস্ত্র সংগ্রাম চালিয়ে আসা বৃহত্তম মার্কসবাদী লেনিনবাদী গেরিলা দল ফার্ক। সিমন বলিভারের বলিভারিয়ানিজম দ্বারা অনুপ্রাণিত সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ও ভুমিবাদী রাজনৈতিক দল ফার্ক মূলত চাষী ভিত্তিক একটি দল । ৫০ বছর ধরে লড়াই চালিয়ে আসা কলম্বিয়ার গেরিলা সংগঠন বিপ্লবী সশস্ত্র বাহিনী (রেভোলুশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়া-ফার্ক) দেশটির ৩০-৩৫ শতাংশ ভূখণ্ডের নিয়ন্ত্রক। সম্প্রতি অনেক জ্যেষ্ঠ নেতা নিহত হওয়ার পরেও ফার্ককে এখনও দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের সর্ববৃহৎ গেরিলা সংগঠন মনে করা হয়। ফার্কের পিপলস আর্মিতে  নারী ও পুরুষ সদস্য সংখ্যা ১৮ হাজার। দলটি ক্ষমতাসীন বুর্জোয়া, মার্কিন মদদপুষ্ট কলম্বিয়া সরকার, বহুজাতিক কোম্পানি ও নয়া উপনিবেশিকতার বিরুদ্ধে গরীব মানুষদের অধিকার আদায়ের জন্যে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। 

২০০৮ সালে হুগো শ্যাভেজ ফার্ককে একটি সঠিক পথের জনগণের আর্মি বলে মন্তব্য করেন। কলম্বিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, চিলি, নিউজিল্যান্ড ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ফার্ককে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দিলেও ব্রাজিল, ভেনিজুয়েলা, আর্জেন্টিনা, নিকারাগুয়া ও ইকুয়েডর সরকার ফার্ককে গেরিলা সংগঠনের স্বীকৃতি দেয়।   farc members


ভারতঃ ছত্রে লাল কমান্ডার আটক

343670-339001-maoists-2

রাঁচি: গত শুক্রবার পুলিশ ঝাড়খণ্ড-বিহার সীমান্তের কাছে প্রতাপপুর থানার জোলহা বিঘা গ্রাম থেকে বলেশ্বর যাদব নামে এক মাওবাদী এরিয়া কমান্ডারকে আটক করে।

ছত্র এসপি সুরেন্দ্র ঝা বলেন, গ্রেফতারের সময় যাদব(৫০) নিরস্ত্র ছিলেন। এসপি আরো বলেন, “কয়েক বছর ধরে যাদব একজন মাওবাদী তাত্ত্বিকের কাজ করছিলেন, তিনি তার সিনিয়রদের বলেছিলেন যে শারীরিক ভাবে অনুপযুক্ত বিধায় অস্ত্র বহন করতে পারবেন না” ।
যাদব সিপিআই(মাওবাদী) এর সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক শাখায় যুক্ত ছিলেন। এসপি বলেন, যাদব নিরাপত্তা কর্মীদের দেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

একজন সিআরপিএফ কর্মকর্তা বলেন,- “এক সপ্তাহ আগে, পুলিশ ছত্র থেকে যাদবের হদিস সম্পর্কে তথ্য পায়, আমরা তার গ্রামের উপর নজরদারী রেখেছিলাম।”

যাদবকে ৫টি মামলার সম্মুখীন হতে হবে।  রাঁচি পুলিশ যাদব সম্পর্কে তথ্য শেয়ার করতে হাজারিবাগ, পালামু, লাতেহার এবং বিহারের গয়াতে তাদের প্রতিলিপি পাঠিয়েছে ।

সূত্রঃ http://timesofindia.indiatimes.com/city/ranchi/Red-commander-held-in-Chatra/articleshow/48031090.cms