ভারতঃ গ্রামবাসীদের উপর অত্যাচারের কারণেই ৪ পুলিশকে জন আদালতে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে মাওবাদীরা

mao-two-655x360

ভারতের ছত্তিশগড়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের উপর অত্যাচারকারী ৪ পুলিশ সদস্যকে জন আদালতে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে মাওবাদীরা।

মাওবাদীদের প্রচার পত্র থেকে জানা যে, ওই পুলিশকর্মীরা স্থানীয় বাসিন্দাদের উপর অত্যাচার করতো। যার পরিপ্রেক্ষিতে মাওবাদীরা জন আদলাতে এই পুলিশদের বিচার করে।
আজ (বুধবার) সকালে বীজাপুরের কুত্রুয় গুডমা গ্রাম এলাকার অপহরণ স্থান হতে ৫ কিমি দূরে একটি সড়কের উপরে মাওবাদীদের প্রচারপত্র সহ ঐ ৪ পুলিশের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঐ প্রচারপত্রে বলা হয়, এই পুলিশকর্মীরা স্থানীয় বাসিন্দাদের উপর অত্যাচার করতো বলেই তাদের এই পরিণতি। এছাড়া ভবিষ্যতে যারা গ্রামবাসীদের উপর অত্যাচার করবে তাদেরও ক্ষমা করা  হবে না বলে হুঁশিয়ার করা হয় ঐ প্রচারপত্রে।

এদিকে পুলিশের ডিএসপি (অপারেশন) সুখনন্দন রাঠোর এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। বীজাপুর জেলা পুলিশ কর্মকর্তা কে এল ধ্রুব জানান, ‘জেলার কুত্রু থানা এলাকা থেকে অপহৃত ৪ পুলিশকর্মীকে হত্যা করে তাদের লাশ গুডমা গ্রাম এলাকার একটি সড়কের উপর ফেলে দেয়া হয়েছে। আজ সকালে এ ঘটনা জানার পর ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে পুলিশের একটি দল রওনা হয়ে গেছে।’

এদিকে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রামসেবক পাকরা এই ঘটনায় হতবাক।  পুলিশকর্মীদের হত্যাকারীদের ধরতে  পুলিশের স্পেশাল অ্যান্টি নকশাল অপারেশন টিমকে এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করা নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও  তিনি জানিয়েছে।

প্রকৃতপক্ষে শুধু পুলিশই নয় পুরো ছত্তিশগড় রাজ্যসরকারই চরম দূর্নীতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। সম্প্রতি খোদ রাজ্যের  মুখ্যমন্ত্রী রমন সিংয়ের ৩৬ হাজার কোটি টাকা লুটপাটের কাহিনী বেরিয়ে এসেছে।  এ ঘটনায় সুপ্রিমকোর্ট দ্বারা বিশেষ তদন্ত দল (এসআইটি) গঠন করারও দাবি জানিয়েছে দিল্লি প্রদেশ কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট অজয় মাকেন ।
এরকম পরিস্থিতিতে এই দুর্নীতিবাজ পুলিশদের বিচার করলো মাওবাদীরা।

তবে এর ঠিক পুলিস নয়। আদিবাসী যুবকদের সামান্য বেতনে মাওবাদীদের সঙ্গে লড়াই করতে নামিয়েছে ছত্তিশগড় সরকার। যদিও এদের নিয়োগকে বেআইনি বলে জানিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তা সত্ত্বেও কী করে এরা পুলিসের হয়ে কাজ করছেন তা মিডিয়া রিপোর্ট থেকে স্পষ্ট নয়।

সূত্রঃ NDTV

Advertisements


Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.