বাংলাদেশঃ প্রকাশক হত্যার প্রতিবাদে জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চের বিবৃতি

62740_105275666201474_7414939_n

বিবৃতি
০১ নভেম্বর, ২০১৫

প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপনকে কাপুরুষোচিতভাবে হত্যা ও আহমেদুর রহমান টুটুলসহ তিনজনকে আহত করার প্রতিবাদ; সরকার দায় এড়াতে পারে না!
প্রতিক্রিয়াশীল-মৌলবাদী শক্তিকে রুখতে প্রগতিশীল-মুক্তমনা শক্তিকে ব্যাপক জনসাধারণের সাথে একাত্ম হওয়ার আহবান!________জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ

———————————————————————————-

এক যুক্ত বিবৃতিতে জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চের আহ্বায়ক মাসুদ খান ও সদস্য সচিব রাতুল বারী জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপনকে কুপিয়ে হত্যা ও শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর প্রকাশক আহমেদুর রহমান টুটুলসহ তিনজনকে কুপিয়ে আহত করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এই কাপুরুষোচিত হত্যাকান্ড ও হামলার দৃষ্টান্তমুলক দাবী করেছেন, একই সাথে প্রতিক্রিয়াশীল শক্তিকে রুখতে প্রগতিশীল-মুক্তমনা শক্তিকে ব্যাপক জনসাধারণের সাথে একাত্ম হওয়ার আহবান জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে সরকারকে দায়ী করে বলা হয়, এর আগেও নিরস্ত্র ও নিরীহ লেখক-ব্লগারকে প্রতিক্রিয়াশীল শক্তির কাপুরুষোচিত হত্যাকান্ডের ঘটনায় সরকারের যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ না করার কারণে পরিস্থিতির দ্রুত অবণতি হয়েছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, এই পরিস্থিতি উত্তরণে প্রগতিশীল মুক্তমনা লেখক-প্রকাশক-ব্লগারদের ব্যাপক জনসাধারণের সাথে একাত্ম হয়ে তাঁদেরকে প্রতিক্রিয়াশীল শক্তির বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামে টেনে আনা ছাড়া লড়াইয়ে বিজয়ী হওয়ার অন্য কোন পথ খোলা নেই। তাই আজ প্রগতিশীল মুক্তমনা লেখক-প্রকাশক-ব্লগারদের ব্যাপক জনসাধারণের পাশে থেকে তাঁদেরকে প্রতিক্রিয়াশীল-মৌলবাদী শক্তির বিরুদ্ধে সংগঠিত করতে হবে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সকল গণতান্ত্রিক-প্রগতিশীল শক্তিকে প্রতিক্রিয়াশীল-মৌলবাদী শক্তির নিরীহ-নিরস্ত্র মানুষের উপর এই কাপুরুষোচিত হত্যাকান্ড ও হামলার ঘটনার বিরুদ্ধে সোচ্চার হবার আহবান জানান।

বার্তা প্রেরক
আদিত্য মাহমুদ
দপ্তর ও প্রচার সচিব,
কেন্দ্রীয় কমিটি, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ।
অস্থায়ী কার্যালয়ঃ ৮৪/ক/এ, সাদেক খান রোড, রায়ের বাজার, ঢাকা-১২০৯।
ই-মেইলঃ gonomancha@yahoo.com, মোবাঃ ০১৭১২৬৭০১০৯।

11164064_998790446849987_3880688109613422984_n

Advertisements

কলকাতাঃ আগামীকাল ২রা নভেম্বর নকশালপন্থি ছাত্র সংগঠনগুলোর উদ্যোগে পুনরায় UGC দখল

12196136_512497732233648_1130537181670565356_n

গত ২৭শে অক্টোবর নকশালপন্থি ছাত্র সংগঠন AISA, USDF এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের মঞ্চ RADICAL , PERIODS সহ একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রীরা কোলকাতার UGC অফিসের সামনে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে non net fellowship চালু, fellowship বৃদ্ধি, মূল্যবৃদ্ধির সাথে fellowship বৃদ্ধি, কোনরকম মেধা বা অর্থনৈতিক মাপকাঠির অজুহাত না দিয়ে সমস্ত গবেষককে non net fellowship প্রদানের দাবীতে, WTO নির্দেশিত শিক্ষানীতি বাতিল ও শিক্ষায় ব্যয় বৃদ্ধির দাবীতে কোলকাতার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ব্যক্তি ছাত্রছাত্রীদের বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। এই অন্যায় সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভ জমায়েত ও দাবি পত্র পেশের পর আগামীকাল ২ নভেম্বর পুনরায় কোলকাতার UGC ভবনে বেলা ১২টায় RE OCCUPY এর ডাক দিয়েছে, এবার নকশালপন্থিদের বিক্ষোভে যোগ দিচ্ছে পূর্বতন শাসক জোট বামফ্রন্টের শরিক দল গুলোর প্রভাবিত AISB, PSU, SFI, AISF এর মত ছাত্র সংগঠনগুলো এবং suci(c) প্রভাবিত AIDSO

10351474_944676195599748_3581395714999142458_n


ভারতঃ নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের উপর নজর রাখছে মাওবাদীরা

crpf1
বোকারোঃ জেলা পুলিশ ও সিআরপিএফ এর সদস্য এবং তাদের পরিবারের উপর মাওবাদীরা নজর রাখছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে তাদেরকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। পুলিশের কাছে তথ্য আছে যে, গত কয়েক দিনে এএসপি (অপারেশন) সঞ্জয় কুমার ও সিআরপিএফ এর সহকারী কমান্ড্যান্ট সিদ্ধার্থ গৌতমের চলাফেরার উপর নজর রাখছে মাওবাদীরা। এই দুইজন ছাড়াও আরো কয়েকজন পুলিশ থাকতে পারে। ঝুমড়া, লুজ্ঞু ও গোমিয়া ও নোয়াদিহ ব্লকের অন্যান্য জঙ্গল এলাকায় মাওবাদী নিধন অপারেশনে নিয়োজিত আছে এই দুইজন অফিসার। গত কয়েক মাসে বেশ কয়েকজন মাওবাদীকে গ্রেফতারের পাল্টা জবাব হিসেবে মাওবাদীরা এই পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে বলে মনে করছে পুলিশ। সিআরপিএফ এর কমান্ড্যান্ট সঞ্জয় কুমার এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে বলেন, মাওবাদী নিধনে নিয়োজিত কয়েকজন অফিসারের উপর নজর রাখছে মাওবাদীরা।

অনুবাদ সূত্রঃ

http://timesofindia.indiatimes.com/city/ranchi/Security-personnel-on-Red-radar/articleshow/49578948.cms