বিপ্লবী চলচ্চিত্রঃ ‘The Guerrilla is a Poet’

kk

dd

ফিলিপিনের বিপ্লবী জোসে মারিয়া সিসন এর কাহিনী নিয়ে এই চলচ্চিত্র, তার বিখ্যাত কবিতা ‘গেরিলারা কবি’ এর নামে চলচ্চিত্রটির নামকরণ করা হয়েছে। চলচ্চিত্রটিতে ফিলিপাইনের জাতীয় গণতান্ত্রিক বিপ্লবের প্রথম বছর এর গল্প এবং কমিউনিস্ট পার্টি ও নিউ পিপলস আর্মি’র অগ্রগতি দেখানো হয়েছে। ১৯৬০ সালে বিপ্লবী ছাত্ররা মাও সেতুং এর শিক্ষার উপর ভিত্তি করে গ্রামাঞ্চলে গণযুদ্ধ শুরু করেন। চলচ্চিত্রটিতে, মার্শাল ল এর অশান্ত বছরগুলোতে গ্রেফতারের আগ পর্যন্ত এবং কারাগারে অন্ধকার ৯টি বছরে সিসন এর বিপ্লবী যাত্রা রয়েছে।

Advertisements

পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি(লাল পতাকা)-র ২ সদস্য গ্রেফতার

Pabna

পাবনার সাঁথিয়ায় একটি বিদেশি রিভলবার ও আটরাউন্ড তাজা গুলিসহ পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি(লাল পতাকা)-র ২ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার পিরাহাটি গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সাঁথিয়ার পাশ্ববর্তী আটঘরিয়া উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের আঃ জব্বারের ছেলে মুন্নাফ (৫৫) ও একই উপজেলার নগর চাছকিয়া গ্রামের নরজেস মিয়ার ছেলে হানিফ মোল্লা (৪৫)।

সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন জানান, নাশকতামূলক কাজের প্রস্তুতিকালে দুইজনকে গ্রেফতার করা হলেও বাকিরা পালিয়ে যায়।

তিনি জানান, গ্রেফতারকৃতরা পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি(লাল পতাকা)-র নেতা। এদের বিরুদ্ধে সাঁথিয়া, আতাইকুলা ও আটঘরিয়া থানায় হত্যা, চাঁদাবাজি ও দ্রুত বিচার আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।

সূত্রঃ http://www.ittefaq.com.bd/wholecountry/2016/04/26/65504.html

TKP/ML গেরিলারাঃ “আমাদের পার্টির ৪৪তম বছরে, বিপ্লবী লাল লাইনের বিজয় গৌরব”

bb

অনূদিত

১৯৭২ সালের ২৪শে এপ্রিল প্রতিষ্ঠিত তুরস্কের মাওবাদী কমিউনিস্ট পার্টি TKP/ML ও তার গেরিলা শাখা Tikko এর ৪৪তম বার্ষিকী উদযাপন করেছে বিপ্লবী সশস্ত্র সদস্যরা। সেই সময় থেকে TKP/ML তুরস্কের শ্রমিকশ্রেণী, নিপীড়িত জাতি, ন্যায়বিচার ও সাম্যবাদের জন্য তাদের লড়াই অব্যাহত রেখেছে। আজ রোজাভায় কৃষ্ণসাগরে TKP/ML এর যুদ্ধ এলাকায় নিজেদের যুদ্ধ জোরদার করার অঙ্গীকার করেছে।

ত ২৪শে এপ্রিল TKP/ML(কমিউনিস্ট পার্টি অব তুরস্ক/মার্কসবাদী-লেনিনবাদী) “Tikko-র ৪৪তম বার্ষিকীতে, আপনাদের  যুদ্ধে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে” শীর্ষক ব্যানার ইস্তাম্বুলে গাজীর আশেপাশে এলাকায় ঝুলিয়ে দেয়।

আমাদের কাছে পাঠানো এক মেইলে, বিপ্লবী সশস্ত্র সদস্যরা ঘোষণা দেয় যে, “পার্টির ৪৪তম বার্ষিকীকে স্বাগত জানিয়ে ইস্মেতপাশা গাজীর আশেপাশে এলাকায় আমাদের গেরিলারা বোমা দ্বারা সুরক্ষিত ব্যানার টাঙ্গিয়ে দেয়”।

ঘোষণায় বলা যে, তুর্কি কুর্দিস্তানে সংগঠিত গণহত্যার জন্য জবাবদিহিতার প্রয়োজন হবে, “বিপ্লবী অনুশীলন, কমিউনিস্ট নেতা ইব্রাহিম কায়পাক্কায়া এটা ৪৪ বছর আগে নির্ধারণ করে তুরস্কে বিপ্লবের পথকে প্রশস্ত করেছেন। কায়পাক্কায়ার কমরেড হিসেবে আমরা এখনো একবার প্রচার করতে চাই যে, আমরা পতাকাকে কখনোই নিচে নামাবো না, যা আমরা তার কাছ থেকেই পেয়েছি। ঐতিহ্যবাহী ফ্যাসিস্ট তুর্কি রাষ্ট্রকে তুর্কি কুর্দিস্তানের উপর তাদের রাজনৈতিক গণহত্যার দায় দায়িত্ব স্বীকারের জন্যে আমরা তাদের বাধ্য করবো।”

সূত্রঃ  nouvelleturquie.com