১০ ঘণ্টার অভিযানে শীর্ষ নকশাল নেত্রী নিহত

998564_214491975370994_1974729976_n

অনূদিতঃ

গতকাল মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রের গাদচিরোলি জেলার ধানুরা তপসিলভুক্ত হুররেকেসা গ্রামে নিরাপত্তা বাহিনী ১০ ঘণ্টারও বেশী অভিযান চালিয়ে কথিত এনকাউন্টারের নামে চাটগাঁও এলাকা কমিটির সম্পাদক রজিথাকে হত্যা করা হয়েছে।  তার মাথার জন্যে পুলিশ প্রশাসন ১৬ লাখ রুপি পুরস্কার ঘোষণা করেছিল।  অভিযানে অংশ নেয়া C 60 কম্যান্ডোরা এ সময় গ্রামে একনাগাড়ে গুলি বর্ষণ করে।  ১০ ঘণ্টার অ্যাকশন অভিযানের পর অর্ধ দগ্ধ অবস্থায় গুলিবিদ্ধ নকশাল নারী নেত্রীকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

গ্রামের যে বাড়ীতে তিনি শেল্টার নিয়েছিলেন, সে বাড়ীর পরিবারকে দিয়ে তাকে আত্মসমর্পণ করতে বলা হলে তিনি আত্মসমর্পণ করতে অস্বীকার করেন।  এরপর তিনি দলমের(মাওবাদীদের সশস্ত্র স্কোয়াড) অন্যান্য সদস্যদের নিরাপদে সরিয়ে দিতে পুলিশের বিরুদ্ধে একাই AK-47 রাইফেল হাতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আমৃত্যু যুদ্ধ চালিয়ে যান।  নিজ কমরেডদের বাঁচানোর জন্যে এসময় তিনি গুলি ছুঁড়ে ১০ ঘণ্টা ধরে পুলিশকে ব্যতি-ব্যস্ত করে রাখেন।  পুলিশ তাকে নিরস্ত্র করতে না পেরে ওই বাড়ীতে under barrel grenade launcher (UBGL) হামলা চালালে বাড়িটি উড়ে যায়। উড়ে যাওয়া বাড়িটি থেকে নকশাল নেত্রী রজিথার গুলিবিদ্ধ অর্ধ দগ্ধ মৃতদেহ, একটি AK-47 ও .303 রাইফেল উদ্ধার করে পুলিশ।

উল্লেখ্য যে, ২০১১ সালের আগস্টে সাবেক চাটগাঁও এর দলম কমান্ডার রনিতা হিছামি ওরফে রামকো’র ক্ষেত্রেও একই ঘটনা হয়েছিল।

সূত্রঃ http://timesofindia.indiatimes.com/city/nagpur/Top-Naxal-woman-cadre-killed-in-10-hr-operation/articleshow/52213495.cms

Advertisements


Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s