ঝিনাইদহে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (জনযুদ্ধ) নেতা নিহত

h

ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডের ফলসি গ্রামের রাবার খেতে র‌্যাবের সঙ্গে পচা বাহিনীর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি জনযুদ্ধের নেতা শহিদুল ইসলাম পচা (৪৫) নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি ওয়ান শুটারগান, ২ রাউন্ড গুলি, ১টি রামদা ও ১টি হাঁসুয়া উদ্ধার করা হয়েছে।

গত ১২ই আগস্ট ভোর ৪টার দিকে র‌্যাবের সঙ্গে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। নিহত পচা একই উপজেলার পারদখলপুর গ্রামের তোরাব আলীর ছেলে।

ঝিনাইদহ র‌্যাবের মেজর মনির আহম্মেদ জানান, জেলার হরিনাকুন্ডু উপজেলার ফলসি গ্রামের রাবার খেতে শহিদুল ইসলাম পচা ও তার লোকজন নিয়ে গোপনে বৈঠক করছিল। এ সময় রাত ৪টার দিকে র‌্যাবের একটি টহলদল গোপন সংবাদ পেয়ে অভিযান চালানোর জন্য ঘটনাস্থলে পৌঁছলে তারা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এ সময় দু-পক্ষের মধ্যে আধ-ঘন্টাব্যাপী ‘বন্দুকযুদ্ধের’ সময় পচা বাহিনীর প্রধান শহিদুল ইসলাম পচা গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। সে সময় বাকি সন্ত্রাসীরা অস্ত্র, গুলি, রামদা এবং হাঁসুয়া রেখে পালিয়ে যায়। র‌্যাব রাতেই নিহত সন্ত্রাসীর মৃতদেহ উদ্ধার করে হরিনাকুন্ডু হাসপাতালে নিয়ে যায়।

তিনি জানান, নিহত শহিদুল ইসলাম পচা নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি দল পুর্ব-বাংলা কমিউনিষ্ট পার্টির নেতা ছিল। তার বিরুদ্ধে হরিনাকুন্ডু থানাসহ বিভিন্ন থানায় হত্যা, ডাকাতি, অপহরণ, চাঁদাবাজিসহ প্রায় ৮টি মামলা রয়েছে।

সূত্রঃ আমাদের সময় 
Advertisements


Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s