বলিভিয়ায় শ্রমিক-জনতার গণপিটুনিতে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিহত

40182-damprildyf-1472191389

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ বলিভিয়ার ধর্মঘটরত ও প্রতিবাদী খনি শ্রমিকরা দেশটির উপ-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অপহরণের পর হত্যার দাবি করেছে বলিভিয়ান সরকার। রোদোলফো ইলানেস ও দেহরক্ষীদের বৃহস্পতিবার অপহরণ করা হয়েছিল। কর্মকর্তারা জানান, লা পাজের দক্ষিণে পান্ডুরো শহরে সড়ক পথে মন্ত্রীর গাড়ি থামিয়ে তাকে অপহরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) স্থানীয় সময় রাতে এ ঘটনা ঘটে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্লোস রোমেরো জানান, সবকিছু পরিষ্কার ইঙ্গিত দিচ্ছে যে, ইলানেসকে ‘নৃশংস ও কাপুরুষোচিত’ আক্রমণে হত্যা করা হয়েছে।

স্থানীয় লা রাজন পত্রিকা প্রতিরক্ষামন্ত্রী রেইমি ফেরেইরাকে উদ্বৃত করে জানিয়েছে, ইলানেসকে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টার দিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পিটিয়ে হত্যার সময় পুলিশ বা কর্তৃপক্ষের কেউ সেখানে উপস্থিত ছিলেন না। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শতাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই খনি শ্রমিকও নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার থেকে খনি শ্রমিকরা পান্ডুরো মহাসড়ক অবরোধ করে আসছে।

এক সময় প্রেসিডেন্ট মোরালেজের অন্যতম সমর্থক দ্য ন্যাশনাল ফেডারেশন অব মাইনিং কো-অপারেটিভস অব বলিভিয়া সরকারের সঙ্গে আলোচনা ব্যর্থ হওয়ার পর অনির্দিষ্টকালের জন্য আন্দোলনের ডাক দিয়েছে।

খনি শ্রমিকদের দাবির মধ্যে রয়েছে, শ্রমিকদের আরও সুযোগ বৃদ্ধি, বেসরকারি কোম্পানিতে কাজের সুযোগ ও বড় ধরনের ইউনিয়ন করার অধিকার।

অপহৃত থাকা অবস্থায় বলিভিয়ান রেডিওকে তিনি জানান, অপহরণকারীরা তার মুক্তির জন্য একটি শর্ত দিয়েছিল। শর্তটি ছিল সরকারকে নতুন আইন নিয়ে খনি শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে।

উপ-মন্ত্রীর মৃত্যু দেশটির প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেজ কে ‘গভীরভাবে প্রভাবিত’ করেছে বলে জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

এর আগে গত মঙ্গলবার বলিভিয়ায় খনি শ্রমিকদের বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় দেশটির পানডুরো শহরের প্রত্যন্ত এলাকায় রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করে খনি শ্রমিকরা।

খনি আইন সংশোধন করে শ্রমিকদের অধিকার বাড়ানো সহ ১০ দফা দাবিতে বিক্ষোভ করে তারা। এসময় পুলিশ বাধা দিলে তাদের মধ্যে শুরু হয় সংঘর্ষ। অন্তত ২৫ জন পুলিশ এ ঘটনায় আহত হয়েছে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। বিক্ষোভ দমনে এক পর্যায়ে শ্রমিকদের ওপর পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে।

সম্প্রতি খনি শ্রমিকদের অধিকার আরও সুসংহত করাসহ ১০ দফা দাবি নিয়ে খনি আইনের সংস্কারে সরকারের প্রতি আহ্বান জানায় জাতীয় খনি সমবায় ফেডারেশন – ফেনকমিন। কিন্তু এ বিষয়ে সরকারের তাদের সমঝোতা না হওয়ায় ক্ষুব্ধ খনি শ্রমিকরা।
f8fab9913c34aea1bc51454627297d7b-57c0077008c9d

সূত্র: বিবিসি।

Advertisements


Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.