“শহীদ ২৪ জন মাওবাদী কমরেডস লাল সেলাম!” – বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলন

sakshipost%2f2016-10%2f76f67ff2-303b-4f34-830d-a7148690f2d1%2f2

ভারতের মাওবাদী গণযুদ্ধ জিন্দাবাদ!

মার্কসবাদ-লেনিনবাদ-মাওবাদ জিন্দাবাদ!

গতকাল ২৪শে অক্টোবর ভারতের ঊড়িষ্যা -অন্ধ্রপ্রদেশ সীমান্তের পাশে মালকানগিরিতে ভারতের কমিউনিষ্ট পার্টি (মাওবাদী)র ২৪ জন গেরিলাকে ঠান্ডা মাথায় হত্যা করেছে নকশাল দমন বিশেষ বাহিনী গ্রেহাউন্ড। বিপ্লবী কবি ভারাভারা রাও এই হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এটা রাষ্ট্রীয় ঠাণ্ডা মাথার খুন। বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলন এর ধিক্কার জানাই। ভারত রাষ্ট্রের এই হত্যাকাণ্ড প্রমাণ করে তারা জনগনের যুদ্ধকে কতটা ভয় পায়। ৭০ এর দশক থেকে আজ অব্দী ভারতে স্বশস্ত্র সংগ্রাম চলছে। ভারত রাষ্ট্র তখন থেকেই এই লড়াইকে দমন করার চেষ্টা চালিয়ে আসছে। কিন্তু সংগ্রাম থেমে থাকেনি। সংগ্রাম এগিয়ে চলছে। দুনিয়াব্যাপী শোষণ-নিপীড়নের প্রতিবাদে জনগণের যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন ভারতের কমরেডগণ। সাম্রাজ্যবাদ ও তার দালালরা যখন জনগনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে তখন এই সমস্ত অন্যায় যুদ্ধের বিরুদ্ধে পৃথিবীর সর্বত্র মুক্তিকামী জনগণের মুক্তির লক্ষ্যে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়া ছাড়া আর কোন উপায় নেই। রাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ভারতের বিপ্লবী সংগ্রাম সারা দক্ষিণ এশিয়ায় ছড়িয়ে পড়বে। প্রতিটি শহীদ কমরেড এর স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে। শহীদদের রক্তের বদলা তার সাথীরা নেবেই নেবে।

বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলন

14875248_547795308736953_1041348140_n


মালকানগিরিতে ফের পুলিসের গুলি, নিহত ৩ মাওবাদী

naxals-dantewada_650x400_81470374847

মালকানগিরিতে মাওবাদীদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর আক্রমণ অব্যাহত। মঙ্গলবার ভোররাতে নিরাপত্তা কর্মীদের গুলিতে নিহত হয়েছে ৩ মাওবাদী। এর আগেই সোমবার ভোরে গ্রেহাউন্ডস ও ওড়িশা পুলিসের যৌথ অভিযানে নিহত হন ২৪জন মাওবাদী। পুলিসের দাবি মাওবাদীরা সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন। তবে মাও সমর্থক ভারভারা রাও অভিযোগ করেছেন পুরোটা ভুয়ো সংঘর্ষ।

সূত্রঃ satdin.in