মাওবাদীদের অত্যাধুনিক অস্ত্র সম্ভারে বিস্মিত CRPF বাহিনী

40_mm_under_barrel_grenade_launcher_3

সুকমায় মাওবাদী হামলায় ২৬ জন জওয়ানের নিহতের ৪৮ ঘন্টা পরও বিস্ময়ের ঘোর কাটছে না প্রশাসনের ৷ ছক কষে , অতর্কিতে যে ভাবে এই গেরিলা হামলা চালানো হয়েছে , তাতে হতবাক বাহিনীর কর্তারা ৷ তবে , তার থেকেও বেশি হতবাক এই হামলায় ব্যবহৃত অত্যাধুনিক অস্ত্র -শস্ত্র দেখে ! হামলার তদন্ত করে গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন , এই প্রথম আইইডি সম্বলিত তীর ব্যবহার করেছে মাওবাদীরা৷ যেমনটা এর আগে কখনও দেখা যায়নি ৷

এছাড়াও , হামলায় ব্যবহার করা হয়েছে আন্ডার ব্যারেল গ্রেনেড লঞ্চার (ইউবিজিএল )৷ যা দিয়ে সিআরপিএফের ৭৪ নম্বর ব্যাটেলিয়নের জওয়ানদের দিকে কমপক্ষে ২০০ টি গ্রেনেড ছুড়েছে তারা ৷ গ্রেনেড গুলি সবই ভারতীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এবং যথেষ্ট ক্ষমতাশালী ৷ কয়েকটি গ্রেনেডের অবশিষ্ট পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে , টার্গেট ৯ মিটার (৩০ ফুট ) রেঞ্জের মধ্যে থাকলে , তাকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেওয়ার ক্ষমতা এই গ্রেনেডের রয়েছে ৷ কিন্তু , কী ভাবে বস্তার অঞ্চলের মাওবাদীরা এমন অত্যাধুনিক অস্ত্র হাতে পেল , তা ভেবে পাচ্ছেন না সিআরপিএফ কর্তারা ৷ সিআরপিএফের ডিআইজি ডিপি উপাধ্যায় টেলিফোনে জানিয়েছেন , ‘এই প্রথম আমরা দেখতে পেলাম , মাওবাদীরা আইইডি (ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস ) লাগানো তির ব্যবহার করেছে ৷ এই কৌশল একেবারে নতুন ৷ এই উচ্চ মাত্রার বিস্ফোরক লাগানো তির যেখানে আঘাত হানবে, সেই জায়গার পাশাপাশি আশপাশের এলাকাকেও ক্ষতিগ্রস্ত করবে৷ ফলে সার্বিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বাড়বে ৷ ’ সিআরপিএফ সূত্রে জানা গিয়েছে , তদন্তে নেমে আধা সামরিক বাহিনীর কর্তারা জানতে পেরেছেন , হামলায় কমপক্ষে ১২০টি আইইডি লাগানো তির ব্যবহার করা হয়েছে ৷ ওই তির যে জওয়ানের গায়ে লেগেছে তাঁর পাশাপাশি পাশে দাঁড়িয়ে লড়াই চালানো জওয়ানও মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছেন ৷ পাশাপাশি আন্ডার ব্যারেল গ্রেনেড লঞ্চার (ইউবিজিএল ) ব্যবহার করেও আধা সামরিক বাহিনীর জওয়ানদের চমকে দিয়েছে মাওবাদীরা ৷ বাহিনী কর্তার কথায়, ‘এটি অত্যাধুনিক অস্ত্র ৷ বিশেষ প্রশিক্ষণ ছাড়া এটা ব্যবহার করা সম্ভব নয় ৷ যা একমাত্র সেনা বা আধা সেনাদের থাকে ৷ মাওবাদীরা কী করে এই প্রশিক্ষণ পেল , সেটাই ভাবার ৷ ’ সিআরপিএফ কর্তারা মনে করছেন , গত মাসে সুকমায় বাহিনীর জওয়ানদের ওপর হামলা চালিয়ে যে গ্রেনেড লঞ্চারগুলি লুঠ করেছিল মাওবাদীরা , সেগুলি দিয়েই এই হামলা চালানো হয়েছে৷

এই হামলায় সশস্ত্র মাওবাদীদের দলে অন্তত প্রায় ২০০ জন মহিলা ছিল বলে জানা গিয়েছে ৷ এমন হামলায় এত বেশি সংখ্যায় মহিলা এর আগে কখনও দেখা যায়নি ৷ সূত্রের খবর , সোমবার দুপুরে খাওয়ার সময়, মাথায় কাঠের বোঝা নিয়ে একের পর এক মহিলাকে সেখানে আসতে দেখেন জওয়ানরা ৷ ভাবেন , স্থানীয় মহিলারা বোধহয় কাঠ কুড়োতে এসেছেন জঙ্গলে ৷ কিন্ত্ত , চোখের পলক ফেরার আগেই , ওই কাঠের বোঝা থেকে একে -৪৭ বের করে গুলি চালাতে শুরু করে তারা ৷ ভুল ভাঙার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন অধিকাংশ জওয়ান ৷ সিআরপিএফ সূত্রে জানা গিয়েছে , সুকমার জঙ্গলে হামলা চালানোর পর ১৩টি একে -৪৭ , ৫টি ইনসাস রাইফেল , ২২টি পিস্তল , ৩৪২০টি তাজা কার্তুজ , একে -৪৭ রাইফেলের ৭৫টি গুলি ভর্তি ম্যাগাজিন , ২২টি বুলেট প্রুফ জ্যাকেট , দুটি শক্তিশালী দূরবীন , ৫টি ওয়ারলেস সেট এবং একটি মেটাল ডিটেক্টর লুঠ করে পালিয়ে যায় মাওবাদীরা ৷

সূত্রঃ http://eisamay.indiatimes.com/nation/crpf-is-stunned-by-the-arms-maoists-are-using/articleshow/58396298.cms


3 Comments on “মাওবাদীদের অত্যাধুনিক অস্ত্র সম্ভারে বিস্মিত CRPF বাহিনী”

  1. veerasuriya says:

    comrades, can you publish this articles also in English language. we have translated many article using google translate and publish in our news webs. but many times we were unable to get good translations. if you publish news in both native and English, the news will be spread to many.

    Like

  2. Khaeda begam. says:

    Long live the victory! Red salute to the brave revolutionary women!

    Like


Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.