বিপ্লবী চলচ্চিত্রঃ ব্যালাড অব সোলজার/Ballad of a Soldier

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলছে। রেড আর্মির এক সৈন্য যুদ্ধক্ষেত্রে। এদিকে শত্রুপক্ষ ধেয়ে আসছে তার দিকে। বয়সে নবীন। বুঝতে পারছে না কী করবে। এমন সময় কাছাকাছি এসে পড়ে বিরোধী শিবিরের ট্যাংক। ভয়ে দৌড়ে একটি বাংকারে ঢুকে যায়। সেখান থেকে সাহস করে একটি ট্যাংককে ধ্বংস করে। এরপর সে তাঁবুতে ফিরে এলে বাহিনীপ্রধান তাকে ডেকে পাঠান। ভয় পেয়ে যায়। ভেবেছিল যুদ্ধক্ষেত্রে স্থান পরিবর্তন করার জন্য তাকে কোনো শাস্তি দেওয়া হবে। কিন্তু দেখা গেল প্রধান তাকে ট্যাংক ধ্বংস করার জন্য সম্মান জানান। উনিশ বছর বয়সী নবীন সেনার মন পড়ে আছে বাড়িতে মায়ের কাছে। সে সম্মানের বদলে বাড়িতে মাকে দেখতে যাওয়ার ছুটির আবেদন জানায়। এরপর ছুটে চলে বাড়ির দিকে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে ১৯৫৯সালে তৈরি এই সোভিয়েত ছবির বিষয়বস্তু কিন্তু একেবারেই যুদ্ধ নয়। যুদ্ধের সাথে মিশে আছে তরুণ জুটির ভালোবাসা, বিবাহিত জুটির ভালোবাসা, মা-ছেলের ভালোবাসা। যুদ্ধের ক্যানভাসে অসাধারণ ভালোবাসার সব গল্প বললেন পরিচালক গ্রিগরি চুখরাই। এই চমৎকার ছবিটির নাম ব্যালাড অব সোলজার/ Ballad of a Soldier ছবিতে আলিওশা ও শুরা চরিত্রে অভিনয় করেছেন ভ্লাদিমির ইভাশভঝানা প্রখোরেঙ্কো।

চলচ্চিত্রটি দেখতে ক্লিক করুন এই লিংকেঃ https://www.youtube.com/watch?v=H2ZFe7XGwt8
Advertisements