নকশাল নারীদের হত্যাঃ গাদচিরোলিতে ৩১শে মে বনধ ডেকেছে মাওবাদীরা

13239340_1316954311654120_3131977406627397307_n

অনূদিতঃ 

গত জানুয়ারি থেকে পুলিশ কর্তৃক ভিন্ন ভিন্ন স্থানে বন্দুকযুদ্ধের নামে ৫জন নকশাল নারীকে হত্যার প্রতিবাদে আগামী ৩১শে মে মহারাষ্ট্রের গাদচিরোলিতে বনধ ডেকেছে মাওবাদীরা, এই ৫জন নকশাল নারী হলেনঃ রজিথা উসেন্দি, মিনকো নারোতি, আরতি পুদো, নির্মলা দুম্মা ও সারিতা কোয়াসি।

পুলিশ সূত্রে জানাচ্ছে, সিপিআই(মাওবাদী) বিভাগীয় কমিটির সদস্য- ‘রজিথা’কে গত ৯ই মে এক সম্মুখযুদ্ধে নিহত হওয়ার আগে তাকে আত্মসমর্পণ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল কিন্তু সে তা অস্বীকার করেছিল।  রজিথা, দীর্ঘ ১০ঘন্টা ধরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সহকর্মীদের পালানোর সুযোগ করে দিতে একাই পুলিশের সাথে AK 47 হাতে যুদ্ধ করেছিল, পুলিশ তাকে আয়ত্তে আনতে না পেরে ওই বাড়ীতে গ্রেনেড লাঞ্চার নিক্ষেপ করলে, গুলিবিদ্ধ ও অর্ধদগ্ধ অবস্থায় তিনি নিহত হন।

এই সকল হত্যাকাণ্ডকে “নির্মম” অভিহিত করে, দণ্ডকারণ্য স্পেশাল জোনাল কমিটির পশ্চিমাঞ্চলীয় উপ-আঞ্চলিক ব্যুরোর মুখপাত্র শ্রীনিবাস এক সংবাদ নোটে বলেন, ব্রাহ্মণ্যবাদী হিন্দু ফ্যাসিবাদী মোদী সরকারের ‘ভাড়াটে হত্যাকারীরা’ ‘মধ্যযুগীয় নিষ্ঠুরতায়’ ৫জন ‘দুর্দান্ত বিপ্লবী’কে হত্যা করে এবং এরই প্রতিবাদে ৩১শে মে বনধ ডাকা হয়েছে।

সূত্রঃ http://indianexpress.com/article/cities/mumbai/killing-of-women-naxals-maoists-call-gadchiroli-bandh-on-may-31-2821189/