অস্ত্র কেনা বন্ধ করেছে কলম্বিয়ার মার্কসবাদী গেরিলা দল ‘ফার্ক’

farc_tropa_tres

কলম্বিয়ার মার্কসবাদী গেরিলা দল ফার্কের নেতা অস্ত্রশস্ত্র কেনা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন।  গতকাল বৃহস্পতিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, টিমোচেনকো নামে পরিচিত রডরিগো লন্ডোনো একহেভেরি সেপ্টেম্বরেই এই নির্দেশ দিয়েছেন। এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কলম্বিয়ার সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘাত বন্ধে ফার্কের প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন ঘটেছে বলে মন্তব্য করেছেন টিমোচেনকো। প্রায় তিন বছর ধরে কলম্বিয়া সরকারের সঙ্গে দেশটির বামপন্থি ফার্ক গেরিলা দলের শান্তি আলোচনা চলছে। উভয়পক্ষই জানিয়েছে, আসছে ২০১৬ এর মার্চে একটি শান্তিচুক্তিতে সই করতে পারবেন বলে আশা করছেন তারা।  রেভ্যুলশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়া বা ফার্ক ১৯৬৪ সাল থেকে সশস্ত্র বিদ্রোহ শুরু করে। তারপর থেকে সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহীর সংঘর্ষে প্রায় ২ লাখ ২০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। ২০১২ সালের নভেম্বরে কিউবা সরকারের উদ্যোগে দেশটির রাজধানী হাভানায় কলম্বিয়া সরকার ও ফার্ক নেতৃবৃন্দের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু হয়। শান্তি আলোচনার অন্যতম উদ্দেশ্য অস্ত্র ত্যাগ করে গেরিলা দলটির বৈধ রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করা। দীর্ঘদিনের আলোচনায় চারটি মূল বিষয়ে দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে।

সূত্রঃ রয়টার্স


শান্তিচুক্তির আলোচনায় মার্কসবাদী গেরিলা দল ‘ফার্ক’ এর ৩০ জন রাজবন্দীকে মুক্তি দিচ্ছে কলম্বিয়া সরকার

সূত্রঃ http://farc-epeace.org/index.php/what-you-should-know/item/918-30-political-prisoners-of-the-farc-ep-will-be-granted-pardon-as-a-result-of-peace-negotiations.html


কলম্বিয়াঃ অস্ত্র কেনা বন্ধ করেছে মার্কসবাদী গেরিলা দল ফার্ক

download

কলম্বিয়ার বামপন্থী মার্কসবাদী গেরিলা দল ফার্কের নেতা অস্ত্রশস্ত্র কেনা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, টিমোচেনকো নামে পরিচিত রডরিগো লন্ডোনো একহেভেরি সেপ্টেম্বরেই এই নির্দেশ দিয়েছেন। এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কলম্বিয়ার সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘাত বন্ধে ফার্কের প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন ঘটেছে বলে মন্তব্য করেছেন টিমোচেনকো। প্রায় তিন বছর ধরে কলম্বিয়া সরকারের সঙ্গে দেশটির বামপন্থি ফার্ক গেরিলা দলের শান্তি আলোচনা চলছে। উভয়পক্ষই জানিয়েছে,আসছে মার্চে একটি শান্তিচুক্তিতে সই করতে পারবেন বলে আশা করছেন তারা। ২০১২ সালের নভেম্বরে কিউবা সরকারের উদ্যোগে দেশটির রাজধানী হাভানায় কলম্বিয়া সরকার ও ফার্ক নেতৃবৃন্দের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু হয়।

গত জুলাইয়ে গেরিলাদের পক্ষ থেকে কলম্বিয়া সরকারকে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব দিলেও তাদের ওপর স্থল অভিযান অব্যাহত রাখে দেশটির সেনাবাহিনী। যদিও ওই প্রস্তাবের পর বিমান হামলা বন্ধ রাখে দেশটির সরকার। দীর্ঘদিনের আলোচনায় চারটি মূল বিষয়ে দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে।

সূত্রঃ  http://www.bbc.com/news/world-latin-america-34784029


মার্কসবাদী ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্টের

farc members

কলম্বিয়ায় দেশটির বামপন্থী মার্কসবাদী ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব দিয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্ট হুয়ান ম্যানুয়েল সানটোস।

আগামী ১ জানুয়ারি থেকে এই যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব দেন তিনি। সেই সঙ্গে, যুদ্ধবিরতির এই প্রস্তাব মেনে নেয়ার মাধ্যমে ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলা সংঘাতের অবসান হবে বলেও এসময় আশা প্রকাশ করেন তিনি।

প্রায় তিন বছর ধরে চলা কলম্বিয়া সরকারের সঙ্গে ফার্ক গেরিলাদের ছয় ধাপের শান্তি আলোচনার চূড়ান্ত ধাপে এসে যৃদ্ধবিরতির এই প্রস্তাব দিল দেশটির সরকার।

গত জুলাইয়ে গেরিলাদের পক্ষ থেকে কলম্বিয়া সরকারকে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব দিলেও তাদের ওপর স্থল অভিযান অব্যাহত রাখে দেশটির সেনাবাহিনী। যদিও, ওই প্রস্তাবের পর বিমান হামলা বন্ধ রাখে দেশটির সরকার।


কিউবায় ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে কলম্বিয়ার শান্তিচুক্তি

news_img

কলম্বিয়ার মার্কসবাদী ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তি স্বাক্ষর করেছে দেশটির সরকার। বুধবার কিউবার রাজধানী হাভানায় দেশটির রাষ্ট্রপতি রাউল ক্যাস্ট্রোর উপস্থিতিতে কলম্বিয়ার রাষ্ট্রপতি জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস ও ফার্ক গেরিলাদের শীর্ষ নেতা রডরিগো লন্ডনোর মধ্যে শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। খবর রয়টার্সের।

এ চুক্তি অনুসারে আগামী ৬ মাসের মধ্যে সব ফার্ক গেরিলাদের অস্ত্র কলম্বিয়া সরকারের কাছে জমা দিতে হবে। আগামী ২৩ মার্চ ২০১৬ অস্ত্র জমা দেয়ার শেষ দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। গত তিন বছর কিউবায় কলম্বিয়া ও ফার্ক গেরিলার মধ্যে একাধিক বৈঠক হওয়ার পর উভয় পক্ষ শান্তিচুক্তিতে রাজী হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৫০ বছর ধরে কলম্বিয়ায় ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে কলম্বিয়া সরকারের যুদ্ধ চলছে। এ যুদ্ধে ২ লক্ষ ২০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। ১০ লক্ষের অধিক মানুষ হয়েছে বাস্তুচ্যুত।

তবে শান্তিচুক্তি সফল হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করেছে অনেকে।


যুক্তরাষ্ট্রের কালো তালিকায় চার মার্কসবাদী ‘ফার্ক’ সদস্য

_85234022_028355187-1

কলম্বিয়ার মার্কসবাদী গেরিলা দল ফার্ক এর চার সদস্যকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট থেকে বলা হয়েছে, এই চারজন সুইজারল্যান্ডের জুরিখে একটি বিপণী ব্যবহার করে তাদের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য একটি ছোট দল গঠন করেছে। মার্কসবাদী ফার্ক বিদ্রোহীরা তাদের ‘কর্মকাণ্ড’ চালানোর লক্ষ্যে সেখানে বসে বিভিন্ন দেশ থেকে অর্থ সংগ্রহ করছে।

১৯৯৯ সালের কিংপিন ধারা অনুযায়ী, এই চার মার্কসবাদী ফার্ক সদস্যের যুক্তরাষ্ট্রে থাকা সব ধরনের সম্পদ বাজেয়াপ্ত হতে পারে। একই সঙ্গে তাদের সঙ্গে যুক্তাষ্ট্রের যে কোনো প্রতিষ্ঠান বা নাগরিকের ব্যবসায়ী সম্পর্ক নিষেধ করা হয়েছে।

কালো তালিকাভুক্ত এই চার মার্কসবাদী ফার্ক সদস্য হলেন, জোসে ভিসেন্টে পেনা পাচেকো, অ্যাডলফো ফনেগ্রা এসপেজো, আইভান গনজালেস জামোরানো ও ক্রিশ্চিয়ান ডেভিড গনজালেস মেজিলা।
তারা বর্তমানে সুইজারল্যান্ডে বসবাস করছেন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্ত সম্পর্কে তাদের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের ড্রাগ এনফোর্সমেন্ট এজেন্সির প্রধান অ্যানথনি মারোত্তা বলেন, ফার্ক আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর তালিকাভুক্ত। তাদের যে কোনো ধরনের কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র সজাগ রয়েছে।

উল্লেখ্য, মার্কসপন্থী ফার্ক গেরিলারা ল্যাটিন আমেরিকার মধ্যে সবচেয়ে বড় গেরিলা গ্রুপ; এবং ১৯৬৪ সাল থেকে তারা সশস্ত্র সংগ্রাম চালিয়ে আসছে।দলটি ক্ষমতাসীন বুর্জোয়া, মার্কিন মদদপুষ্ট কলম্বিয়া সরকার, বহুজাতিক কোম্পানি ও নয়া উপনিবেশিকতার বিরুদ্ধে গরীব মানুষদের অধিকার আদায়ের জন্যে সংগ্রাম করে যাচ্ছে।

২০০৮ সালে হুগো শ্যাভেজ ফার্ককে একটি সঠিক পথের জনগণের আর্মি বলে মন্তব্য করেন। কলম্বিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, চিলি, নিউজিল্যান্ড ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ফার্ককে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দিলেও ব্রাজিল, ভেনিজুয়েলা, আর্জেন্টিনা, নিকারাগুয়া ও ইকুয়েডর সরকার ফার্ককে গেরিলা সংগঠনের স্বীকৃতি দেয়।

সাম্প্রতিক সময়ে কিউবাতে কলম্বিয়া সরকারের সাথে তাদের যুদ্ধ বিরতি ও শান্তি আলোচনা চলছে।

সূত্রঃ http://www.bbc.com/news/world-latin-america-34082252


‘লাল সংবাদ’ এর প্রতি কলম্বিয়ার মার্কসবাদী গেরিলা দল ‘ফার্ক’ এর বার্তা

farc-flag

 

লাল সংবাদএর প্রতি কলম্বিয়ার মার্কসবাদী গেরিলা দলফার্কএর বার্তা

Thank you very much comrades, your website is interesting and we feel glad to have people on the other side of the world who show their solidarity with us! For our news in English: www.farc-epeace.org. Keep up the good work!”   FARCEP

নোটঃ 

[কলম্বিয়ার সর্ববৃহৎ মার্কসবাদী গেরিলা দল ‘ফার্ক‘ এক বার্তায় তাদের বিপ্লবী সংবাদ সমুহ নিয়মিত বাংলায় প্রকাশ করায় ‘লাল সংবাদ‘কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। উল্লেখ্য যে, ‘লাল সংবাদ‘ দীর্ঘদিন ধরে ‘ফার্ক‘ এর গেরিলা সংগ্রামের সংবাদ সমূহ বাংলায় প্রকাশ করে আসছে। ]

লাল সংবাদ‘ এ প্রকাশিত ‘ফার্ক‘ সংবাদ সমুহ পড়তে নীচের লিঙ্কে ক্লিক করুন –

ফার্ক-লাল সংবাদ

farc_tropa_tres