ফিলিপিনঃ মাওবাদী গেরিলারা থানায় হামলা চালিয়েছে

npa

গত সোমবার সন্ধ্যা ৭.৩০মিনিটের দিকে অন্তত ২০জন মাওবাদীর একটি দল, বালাংকায়ানে দায়িত্ত্বরত ৫ জন পুলিশ অফিসারকে থানা সহ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেন। মাওবাদীদের প্রথম দলটি থানায় সশস্ত্র অবস্থায় ঝটিকা হামলা চালিয়ে নিজেদের মাওবাদী NPA এর সদস্য হিসেবে পরিচয় দেন। দ্বিতীয় দলটি এসল্ট রাইফেলসহ অনুসরণ অবস্থায় থাকে। এ সময় মাওবাদীরা পুলিশ সদস্যদের মাটিতে শুয়ে পড়তে বলে। মাওবাদীরা থানার অস্ত্রাগার দখল করে নিজেদের আয়ত্তে নেয়, এর মধ্যে ছিল M16 রাইফেল সহ শর্ট গান। তারা দুটি ল্যাপটপ ও ইউনিফর্মও জব্দ করে নেয়। এরপর মাওবাদী গেরিলারা বালাংকায়ানের ২টি গ্রাম বারাঙ্গায় বালোবো ও তিগবাওয়ে’র ভিতর দিয়ে চলে যায়।

অনুবাদ সূত্রঃ

http://maoistroad.blogspot.com/2016/03/support-peoples-war-in-philippines_11.htmlফিলিপিনের


কলা চাষে রাসায়নিক স্প্রে ব্যবহারকারীদের প্রতি ফিলিপিন মাওবাদীদের সতর্ক বার্তা

20130207-IMG_0223jonb-687x1030

ফিলিপিনের কমিউনিস্ট পার্টির রাজনৈতিক শাখা এনডিএফপি(NDFP-NEMR) এর মুখপাত্র কা মারিয়া, জোরালো ভাবে কারগা অঞ্চলে শ্রমিকদের, বাসিন্দা ও পরিবেশের ক্ষতির কারণে রাসায়নিক বায়ু স্প্রে(বিমান থেকে স্প্রে) এর ব্যবহার বন্ধ করতে কলা চাষের মালিকদের সতর্ক করে দিয়েছে। এছাড়া ঠিকাদার ও বিমানের পাইলটদের সতর্ক করে দিয়ে বলেন, তারা যদি বায়ু স্প্রে বন্ধ না করে তবে মাওবাদী NPA আর্মি গুলি করে তাদের বিমানকে ভুপাতিত করবে।

উল্লেখ্য যে, কারাগার পুঁজিবাদী কোম্পানিগুলো কলা চাষের কাজে রাসায়নিক বায়ু স্প্রে ব্যবহার করে আসছে, ফলে স্প্রের প্রভাবে আশেপাশের এলাকার হাজার হাজার বাসিন্দা, গাছ ও প্রাণী মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। বাসিন্দাদের চর্ম রোগ সহ এলাকার পানীয় জলের উৎস দূষিত হয়ে পড়েছে। এতে করে মাওবাদীরা গত ডিসেম্বরে তা বন্ধ করার আহবান জানায়, কিন্তু কোম্পানি সেই আহবান উপেক্ষা করে রাসায়নিক বায়ু স্প্রে চালিয়ে যাচ্ছে। এর ফলশ্রুতিতে মাওবাদীরা এবার কোম্পানি ও তাদের দোসরদের প্রতি চূড়ান্ত সতর্ক বার্তা দিল।

অনুবাদ সূত্রঃ http://www.ndfp.org/aircrafts-of-toxic-aerial-spray-will-be-gunned-down-by-the-npa-if-they-do-not-stop/


ফিলিপিনঃ কারাগা অঞ্চলে কয়লা খনি সংস্থাগুলোর উপর মাওবাদীদের যুদ্ধ ঘোষণা

Red-fighters

ফিলিপিন কমিউনিস্ট পার্টির রাজনৈতিক শাখা ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট কারাগা অঞ্চলে কয়লা খনি কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে এবং  আক্রমণ পরিচালনা করার জন্যে নিউ পিপলস আর্মি(NPA)কে আদেশ দেয়া হয়েছে।

এক ইমেল বিবৃতিতে NDF-র উত্তরাঞ্চলীয় মিন্দানাও কমান্ডের মুখপাত্র মারিয়া মালয় বলেন, এ অঞ্চলটি বর্তমানে মিন্দানাওয়ের সর্ববৃহৎ কয়লা খনির লক্ষ্যবস্তু।

মালয় বলেন, “কারগা’র মোট ১.১০.০০০ হেক্টর ভূমিকে কয়লা খনির জন্য লক্ষ্যবস্তু করা হচ্ছে। এর মানে এই খনির জন্যে বন ও পাহাড় আরও ধ্বংস হবে। এটা হাজার হাজার জনগণকে স্থানচ্যুত ও তাদের জীবিকাকে ধ্বংস করে দেবে এবং দ্রুত এই গ্রহের জলবায়ুর খুব খারাপ পরিবর্তন ঘটাবে”।

NDF জানায়, মাওবাদী নিউ পিপলস আর্মি এই অঞ্চলে তাদের সকল ইউনিটকে নিজ নিজ এলাকায় কয়লা খনি কোম্পানি প্রতিরোধে শাস্তিমূলক কার্যক্রম চালানো, তাদের সরঞ্জাম ধ্বংস করতে, কোম্পানির এজেন্ট বা প্রশাসকদের এলাকায় প্রবেশে বাধা দান এবং তাদের সশস্ত্র বাহিনীর উপর আক্রমণের নির্দেশ দিয়েছে।

মালয়,  কয়লা খনির কোম্পানীর সঙ্গে যে সমস্ত স্থানীয় ব্যবসায়ী ও ঠিকাদাররা ব্যবসা করছেন তাদের সরঞ্জাম এবং ব্যবসার ধ্বংস এড়াতে থেকে এই ধরনের কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করে দেন।

বিস্তারিতঃ

The National Democratic Front has declared war against coal mining companies in the Caraga region and ordered the New People’s Army to mount attacks.

In an emailed statement, Maria Malaya spokesperson of the NDF’s Northern Mindanao command, said the region is currently the target of largest coal mining in Mindanao.

“In total, more than 110,000 hectares of Caraga’s land are being targeted for coal mining. This means further destruction of forests and mountains for mining. This will dislocate and destroy the livelihood of thousands of people and worsen the rapid climate change of the planet,” Malaya said.

The NDF said the New People’s Army in the region has commanded all units within its territory “to carry out punitive actions to prevent coal mining companies from operating in the areas, by destroying their equipment, preventing their agents or administrators from entering the area and attacking their armed troops.”

“The more than 110,000 hectares of land have been allocated among mining capitalists. More than 20,000 hectares of land in the region have been awarded by the government for mining to the capitalists Abacus Coal Exploration, Great Wall Mining, Benguet Corp. and Bislig Ventures,” said Malaya.

The mountainous region of Caraga represents 6.3 percent of the country’s total land area and 18.5 percent of Mindanao’s. The region has four provinces and three cities with a land area of 1,884,697 hectares.

Meanwhile, seven companies have been allowed to appropriate more than 30,000 hectares for exploration, while another 62,000 hectares are being offered by the government.

Malaya said coal mining will cause significant damage to the environment and people that would intensify the destruction resulting from nickel mining and agricultural plantations in Caraga.

“The coal will feed the power plants or coal-fired power plant (CFPP). These plants will discharge hazardous emissions that would aggravate global warming and contribute to climate change. This problem is escalating as shown by the increase and intensity of typhoons likeYolanda, Pablo and Sendong,” she added.

She added dislocation of Lumads and farmers will ensue as their ancestral lands and farm lands cover the mine-rich areas.

“This also means militarization to brutally suppress those who oppose, harass and drive away residents from the area that the capitalists will mine, like what has been done to the more than 6,000 residents of six municipalities of Surigao del Sur,” said Malaya.

In September 1, anti-mining tribal leaders of the Malahutayong Pakigbisog Alang sa Sumusunod (Mapasu) and a school director were killed by members of the paramilitary troops. The incident resulted to the evacuation of more than 3,000 individuals who are still staying at the Tandag City Provincial Sports Complex.

“This is in contrast to the land reform program implemented by the revolutionary movement.  The reactionary government is instead strengthening land monopoly of big capitalists instead of solving landlessness of farmers,” said Malaya.

Local businesses warned

Malaya has also warned local businessmen and contractors to refrain from doing business with coal mining companies to avoid the destruction of their equipment and business.

Two coal power plants are operating in Mindanao at present, one in Misamis Oriental and another in Davao City.  Another three plants are being contracted in Maasin (Sarangani), Sta. Cruz (Davao del Sur) and Phividec (Misamis Oriental).

According to the website of Mines and Geosciences Bureau Region 13, the revenue collection from mining operations in 2014 has totaled P15,060,866.70.

অনুবাদ সুত্রঃ davaotoday


ফিলিপিনের মাওবাদী আর্মিতে যুবকদের যোগদান বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বিগ্ন সরকারী বাহিনী

1935491_1654414064827887_8666907650141027459_n

ফিলিপিনের সরকারের সম্মিলিত সামরিক বাহিনী (The Armed Forces of the Philippines-AFP/এএফপি), কর্ডিলেরা অঞ্চলে ফিলিপিনের কমিউনিস্ট পার্টির সশস্ত্র শাখা- নিউ পিপলস আর্মি(NPA)তে যুবকদের যোগদানের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত এই যুবকদের অধিকাংশই রাজধানী ম্যানিলা থেকে আসছে।

এদেরই একজন কমান্ডার কুরিন, এই নারী গেরিলা ফিলিপিনের একটি শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজ ছাত্রী, স্নাতক উত্তীর্ণ হবার পর তিনি ফরেন সার্ভিসে চাকরীর জন্যে আবেদন করেন। কিন্তু চাকরীতে ভাড়ায় কাজ করতে বললে তিনি তা প্রত্যাখ্যান করে, নিউ পিপলস আর্মিতে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। আরেকজন নারী গেরিলা আছেন নাম- কারহা, তিনি ফূগাওয়ের কিউপিদিলিমানের সাবেক সাংবাদিক ও ছাত্রী । এমন আরো অনেক গেরিলা আছেন, যারা দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রী নেয়ার পর রাষ্ট্রীয় বৈষম্য ও শোষণের কারণে মাওবাদী NPA আর্মিতে যোগ দেন।

একজন বিশেষজ্ঞ বলেছেন, সরকার তরুণদের মধ্যে অসন্তোষের মাত্রা  বাড়িয়ে নিজেদের শত্রু তৈরি করছে।

কিন্তু The Armed Forces of the Philippines-AFP/এএফপি বলছে, কমিউনিস্ট দলে যুবকদের যোগদান করা থেকে ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে তথ্যমূলক শিক্ষার শক্তিশালী কার্যক্রম চলতে থাকবে।

অনুবাদ সূত্রঃ

http://news.abs-cbn.com/video/nation/regions/v1/01/14/16/afp-alarmed-over-increasing-number-of-youth-joining-npa


ফিলিপিনঃ প্রতিক্রিয়াশীলদের নির্মাণ প্রতিষ্ঠানে হামলা চালালো মাওবাদী গেরিলারা, দুই নিরাপত্তাকর্মী খতম

26anib22-620x425

৭ই ডিসেম্বর (সোমবার) বিকেলে ফিলিপিনের নিউ পিপলস আর্মির (NPA) প্রায় ২০ জন মাওবাদী গেরিলার একটি দল লামফুগনের বারাঙ্গের লামসুগুইং এর গেম্মা নামক একটি সড়ক নির্মাণ কারখানায় হামলা চালায়। বারাঙ্গের লামফুগনের(লেক সেবু) বারাঙ্গে আপার সেপাকা (সুরাল্লা) পর্যন্ত একটি সংযুক্ত সড়ক নির্মাণ করছে গেম্মা নামক এই প্রতিষ্ঠানটি।

এই হামলায় দুইজন সশস্ত্র নিরাপত্তাকর্মী খতম হয় ও আরো পাঁচজন আহত হয়। মাওবাদীরা ভারী নির্মাণ যন্ত্রপাতিতে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

অনুবাদ সূত্রঃ http://www.interaksyon.com/article/121214/npa-torch-construction-equipment-kill-2-guards-wound-5-others-in-south-cotabato


ফিলিপিনঃ বুকিদননে মাওবাদী NPA এর ৫ সদস্য নিহত ও ২ সরকারি সৈনিক আহত

index

ম্যানিলা-বুকিদননের পাঙ্গানতুকানের বারাঙ্গে মেন্দিজে এক সংক্ষিপ্ত বন্দুকযুদ্ধে মাওবাদী নিউ পিপলস আর্মির (NPA) অন্তত ৫ জন সদস্য নিহত ও ২ জন বিশেষ বাহিনীর সৈন্য আহত হয়েছে।

বুধবার পূর্ব মিন্দানাও কমান্ডের পাবলিক এ্যাফেয়ার প্রধান ক্যাপ্টেন আলবার্তো ক্যাবের বলেন, মাওবাদীরা ছিল NPA এর উত্তর মধ্য মিন্দানাও আঞ্চলিক কমিটির নেতৃত্বাধীন। প্রথম বিশেষ বাহিনী ব্যাটেলিয়নের তৃতীয় বিশেষ বাহিনী কোম্পানির ২ সৈনিকের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

মাওবাদীদের উপস্থিতির সংবাদ পেয়ে সরকারী সৈন্যরা অত্র এলাকায় অভিযান চালায়। মঙ্গলবার বেলা ৪ টা ১৪ মিনিট নাগাদ তারা মাওবাদীদের মুখোমুখি হয়। ক্যাবের বলেন, মাওবাদীরা একটি একে-৪৭ রাইফেল, ১৯টি ব্যাকপ্যাক, খাবার, চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ও কাগজপত্র ফেলে যায়।

তিনি বলেন, “আহত সৈনিকদের দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। আর্মির অন্যান্য বাহিনী এলাকায় অভিযান সচল রেখেছে”।

ব্যাটেলিয়ন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল নাসের লিডাসান জানান, যথাযথ বিন্যাসের জন্য মাওবাদীদের নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব স্থানীয় কর্মকর্তাদের উপর ন্যস্ত করা হয়েছে।

সূত্রঃ http://www.sunstar.com.ph/zamboanga/local-news/2015/08/19/5-npa-rebels-die-2-soldiers-hurt-bukidnon-clash-425526