পুলিশের বাধা স্বত্বেও ল্যাম্পপোস্টের উদ্যোগে ‘ভারতীয় সম্প্রসারণবাদ প্রতিরোধ দিবস’ পালন

19748800_1909168722699353_1248831192428223887_n

ঢাকাঃ আজ ৫ জুলাই ‘ভারতীয় সম্প্রসারণবাদ প্রতিরোধ দিবস’-এ ল্যাম্পপোস্ট ‘সাম্রাজ্যবাদ সৃষ্ট তথাকথিত ক্রুসেড ও উগ্র জাতীয়তাবাদী ষড়যন্ত্রকে রুখে দিতে জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবকে বেগবান করুন’ শ্লোগান নিয়ে জাতীয় জাদুঘর গেটের সামনে আলোচনা সভা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করেছিল কিন্তু পুলিশী বাধায় অনুষ্ঠানটি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদী আলোচনা সভায় স্থানান্তরিত করতে বাধ্য হয়। প্রতিবাদী আলোচনায় বক্তারা বলেন- সাম্রাজ্যবাদের প্রেসক্রিপশনে সম্প্রসারণবাদের নিবিড় পরিচর্যায় এই দেশ এমন ফ্যাসিবাদী রূপ পরিগ্রহ করেছে যে, যেকোন ধরনের গণতান্ত্রিক মত প্রকাশের প্রক্রিয়াকে নির্মূলে এবং তাকে ধর্মীয় জঙ্গী ভাবমানসের বাতাবরণে ফেলে চিরতরে বন্ধ করে জনগণের ন্যূনতম গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণও নিশ্চিতভাবে বন্ধ করতে চায়। ফলে সাম্রাজ্যবাদের সেবাদাস জঙ্গীবাদ যেমন বেড়ে চলেছে রাষ্ট্রীয় ছত্রছায়ায় একই ভাবে এই রাষ্ট্র পুলিশীকরণের প্রক্রিয়ায় পুলিশী দমন-পীড়নকে বাড়বাড়ন্ত করতে জঙ্গীবাদ সহায়তা করছে। আসুন মানুষের উপর মানুষের শোষণমূলক এই সাম্রাজ্যবাদ -সম্প্রসারণবাদ-সামন্তবাদ ও আমলা মুৎসুদ্দি পুঁজিবাদী ব্যবস্থাকে চূর্ণ-বিচূর্ণ করে জনগণতান্ত্রিক রাষ্ট্র গঠনের নিমিত্তে জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবকে বেগবান করি। ‘সাম্রাজ্যবাদ সৃষ্ট তথাকথিত ক্রুসেড ও উগ্র জাতীয়তাবাদী ষড়যন্ত্রকে রুখে দিতে জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবকে বেগবান করুন’ শ্লোগানটিকে শ্রেণীসংগ্রামের অনিবার্যতায় প্রয়োগ করি। আসুন মার্কসবাদ-লেনিনবাদ-মাওবাদ ও কমরেড চারু মজুমদারের শিক্ষার আলোকে ঐতিহাসিক গণমুক্তির সংগ্রামগুলির অনুপ্রেরণায় আমরা ঐক্যবদ্ধ হই এবং সকল প্রতিক্রিয়ার সৌধকে গুঁড়িয়ে দিই। জয় জনতার হবেই। কারণ জনগণই ইতিহাসের স্রষ্টা।

প্রতিবাদী আলোচনায় অংশ নেন-

১. ফারহানা হক শামা, সাধারণ সম্পাদক-গণমুক্তির গানের দল

২. বিপ্লব ভট্টাচার্য, আহ্বায়ক- ছাত্র যুব আন্দোলন

৩. নাহিদ সুলতানা লিসা, সম্পাদক- ল্যাম্পপোস্ট

বার্তা প্রেরক

নাহিদ সুলতানা লিসা, সম্পাদক- ল্যাম্পপোস্ট