কমরেড মাও এর কাছে কমরেড স্ট্যালিনের টেলিগ্রাম(ইংরেজি থেকে অনুবাদ)

Staline espionne Mao Zedong, histoire du soir

১০ জানুয়ারি ১৯৪৯।

কমরেড মাও জেদং,

৯ জানুয়ারি আমরা নানজিং সরকারের একটা চিঠি পেয়েছি। চিঠিতে নানজিং সরকার ও চিনা কমিউনিস্ট পার্টির মধ্যকার যুদ্ধবিরতি ও শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে সিদ্ধান্তে পৌছার ক্ষেত্রে মধ্যস্ততা করার জন্য সোভিয়েত সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে।একই সময়ে, একই প্রস্তাব দেয়া হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ফ্রান্স সরকারের কাছে। তাদের কাছ থেকে নানজিং সরকার এখনো কোন প্রতিউত্তর পায়নি। সবদিক বিবেচনায় এটাই নিশ্চিত , এই প্রস্তাব মার্কিনীদের নির্দেশেই করা হয়েছে। উদ্দেশ্য, নানজিং সরকারকে যুদ্ধ বন্ধ ও শান্তি প্রতিষ্ঠার প্রস্তাবক রুপে প্রতিষ্ঠা করা, চিনা কমিউনিস্ট পার্টিকে যুদ্ধবাজ হিসেবে পরিচিত করা যদি তারা সরাসরি নানজিদের সাথে শান্তি আলোচনা প্রত্যাখ্যান করে। আমরা এভাবেই তাদের প্রস্তাবের জবাব দেয়ার কথা বিবেচনা করছি : সোভিয়েত সরকার চিনে যুদ্ধ বন্ধ ও শান্তি প্রতিষ্ঠার পক্ষে তার অবস্থান চলমান রাখবে। কিন্তু মধ্যস্থতা করার পুর্বে তাকে অবশ্যই অন্যপক্ষ, চিনা কমিউনিস্ট পার্টির মতামত জানতে হবে, তারা সোভিয়েত সরকারের মধ্যস্থতা মেনে নিতে রাজি আছে কিনা। এ লক্ষ্যে সোভিয়েত সরকার চায়, নানজিং সরকার শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে চিনা কমিউনিস্ট পার্টিকে অবগত করুক এবং সোভিয়েত সরকারের মধ্যস্থতা নিয়ে তাদের মতামত নিক। আমরা এভাবেই জবাব দেয়ার চিন্তা করছি এবং আপনাদের প্রতি অনুরোধ এতে আপনাদের মত/ ভিন্নমত যাই হোক, জানাবেন।

একইভাবে আমাদের মনে হয়, আপনাদের সম্ভাব্য জবাব( যদি আপনাদের জিজ্ঞেস করা হয়), মোটামুটি এরকমই হতে পারে:

কমিউনিস্ট পার্টি সবসময় চীনে শান্তির পক্ষে কেননা চীনের এই গৃহযুদ্ধ কমিউনিস্ট পার্টি শুরু করেনি, শুরু করেছে নানজিং সরকার। যুদ্ধের সামগ্রিক ফলাফলের জন্য তারাই দায়ী । চীনা কমিউনিস্ট পার্টি কুউমিনতাং এর সাথে আলোচনা করতে প্রস্তুত কিন্তু সে সব যুদ্ধাপরাধী ব্যতীত যারা চীনে গৃহযুদ্ধ উসকে দিয়েছে। চীনা কমিউনিস্ট পার্টি কুউমিনতাং এর সাথে কোন প্রকার মধ্যস্থতাকারী ছাড়াই কথা বলতে প্রস্তুত। যেসব বিদেশী তাদের আকাশ শক্তি ও নৌ শক্তি নিয়ে ‘চাইনিজ পিপলস লিবারেশন আর্মির’ বিরুদ্ধে চীনের গৃহযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছে তারা কখনওই যুদ্ধ বন্ধে মধ্যস্থতাককারী হিসেবে নিরপেক্ষ ও নৈবর্ত্তিক হবেনা। আমরা মনে করি, আপনাদের জবাব মোটামুটিভাবে এমনটিই হওয়া উচিৎ।

যদি এতে আপনারা রাজী না হন, আপনাদের মতামত অবশ্যই জানাবেন।

আমরা আপনার মস্কো সফর নিয়ে ভাবছি। আমাদের মনে হয় বর্ত্তমান অবস্থার প্রেক্ষিতে আপনার বিদেশ সফর বাদ দেয়া উচিৎ। এমন পরিস্থিতিতে, আপনার মস্কো সফরকে শত্রুপক্ষ চীনা কমিউনিস্ট পার্টির অযোগ্যতা, মস্কোর উপর আস্থাবান ও নির্ভরশীল হিসেবে প্রচার চালাতে পারে। এটা নিশ্চিতভাবে চীনা কমিউনিস্ট পার্টি ও সোভিয়েত ইউনিয়নের জন্য সুবিধাজনক হবেনা।

আপনার উত্তরের অপেক্ষায়,
ফিল্লিপভ।

 

অনুবাদঃ সাইফুদ্দিন সোহেল

মুল সুত্র:http://www.revolutionarydemocracy.org/rdv3n2/maostal.htm

Advertisements

শুভ জন্মদিন – কমরেড মাও সে তুং, লাল সালাম!

2944f817dd27da03972b4326


মাওয়ের অবদানই প্রধান, মনে করেন চীনের মানুষ

Mao-NYPL

মাও জে দঙের ভুলভ্রান্তির তুলনায় তাঁর অবদান অনেক বেশি। মাওয়ের ১২০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গ্লোবাল টাইমস পত্রিকার ওই সমীক্ষায় ৮৫শতাংশ উত্তরদাতা জানিয়েছেন মাওয়ের অবদানই প্রধান, ভুলগুলি নয়। সমীক্ষায় প্রশ্ন ছিলো, ‘আপনি কি মনে করেন মাও জে দঙের অবদান তাঁর ভুলগুলিকে অতিক্রম করে যায়?’ ৭৮.৩শতাংশ উত্তরদাতা বলেছেন, হ্যাঁ, তাঁরা তাই মনে করেন। ৬.৮শতাংশ বলেছেন, তাঁরা জোরের সঙ্গে এ কথা মনে করেন। ১১শতাংশ বলেছেন, তাঁরা এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন। উত্তরদাতাদের ৯০শতাংশই বলেছেন মাওয়ের বৃহত্তম অবদান ‘বিপ্লবের মধ্যে দিয়ে এক স্বাধীন দেশ প্রতিষ্ঠা করা’।


কমরেড মাও সে তুঙের ১২৩ তম জন্মদিবসে ‘গণমুক্তির গানের দল’ এর আহবান

10370993_1650437651873542_7613154403613468273_n


বাংলাদেশঃ আগামীকাল মহান কমরেড মাও সে তুং-এর ১২৩তম জন্মদিবসে আলোচনা সভা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

12377920_1650438611873446_945195612998781112_o

 

10370993_1650437651873542_7613154403613468273_n


চীনের ঐতিহাসিক লং মার্চের উপর ভিত্তি করে নির্মিত তথ্যচিত্র(বাংলায়)

১৯৩৪-৩৫ সালে চীনে মাও সে তুং-এর নেতৃত্বে সংঘটিত ঐতিহাসিক লং মার্চের উপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছে এই তথ্যচিত্রটি। ‘গণমুক্তির গানের দল’ কর্তৃক এই তথ্যচিত্রটি ২০১৩ সালে বাংলায় অনূদিত হয়েছে ।


‘গণ প্রজাতান্ত্রিক চীন’ এর ঘোষণা দিচ্ছেন কমরেড মাও সে তুং(ভিডিও)