১০ মাওবাদী হত্যার জেরে তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীকে হুমকি মাওবাদীদের

28685194_2043536818995862_2338813113942477488_n

তেলেঙ্গানা- ছত্তিশগড় সীমান্তে যৌথ পুলিস হানায় ১০ মাওবাদীর নিহত হলেও মাও শীর্ষ নেতা হরিভূষণ মারা যাননি বলে এক প্রেস বিবৃতি জারি করে জানিয়ে দিল মাওবাদীরা। দ্য নিউজ মিনট ওয়েবসাইটে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ভুয়ো সংঘর্ষের বদলা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে মাওবাদীরা।  মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী প্রথমে জানা যাচ্ছিল শুক্রবার সকালের কথিত সংঘর্ষ হয়েছিল ছত্তিশগড়ের বিজাপুর জেলার জঙ্গলে। মাওবাদীরা দাবি করেছে তাদের ১০ কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে তেলেঙ্গানার জয়শঙ্কর -ভূপালাপল্লি জেলায়। মাওবাদীদের অভিযোগ জল ও জমি করপোরেটদের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী KCR ভুয়ো সংঘর্ষ করে তাদের কর্মীদের হত্যা করছেন। শুক্রবারের সংঘর্ষে ১০ মাওবাদী নিহত হলেও এখনও পর্যন্ত ৭জনের দেহ শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। তাদের মধ্যে ২জন তেলেঙ্গানার , বাকিরা ছত্তিশগড়ের। সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন গ্রেহাউন্ডের এক জওয়ান, জখম হয়েছেন ৩জন।

সূত্রঃ satdin.in


ভারতঃ মুখ্যমন্ত্রীকে চরম সাজার হুমকি মাওবাদীদের

file

কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীকে চরম সাজা পেতে হবে। ছত্রধর মাহাতোর যাবজ্জীবন সাজা হওয়ার পর জেল থেকেই হুমকি দিলেন ১২ জন মাওবাদী। প্রেসিডেন্সি জেলে বন্দি ১২ জন মাওবাদী এই হুমকি দিয়েছেন।

সূত্রের খবর, জেল থেকেই মুখ্যমন্ত্রীকে স্মারকলিপি পাঠাচ্ছেন তাঁরা। ইতিমধ্যেই অনশন শুরু করেছেন ১২ জন। তাদের অভিযোগ, ক্ষমতায় আসার আগে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক করেছেন ছত্রধরের সঙ্গে। আর ক্ষমতায় আসার পর তাকেই শাস্তি দিচ্ছেন।

ছত্রধর রাষ্ট্রদ্রোহী হলে আপনিও রাষ্ট্রদ্রোহী, ক্ষমতায় আসার আগে ছত্রধরের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ক্ষমতায় এসে  বিশ্বাসঘাতকতা করছেন মুখ্যমন্ত্রী । স্মারকলিপিতে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে এই কথা লিখেছেন মাওবাদী বন্দিরা। শুধু আপনার জন্য পরিবর্তন আসেনি বলে স্মারকলিপিতে দাবি মাওবাদী বন্দিদের। মুখ্যমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে জেলবন্দি মাওবাদীরা জানিয়েছে এর জন্য তাঁকে চরম ফল পেতে  হবে।

অন্যদিকে, ছত্রধরও সাজা ঘোষণা হওয়ার পর একই কথা বলেছেন। ছত্রধরের মতে তাঁর সঙ্গে বর্তমান শাসক দলের লোকেরও যোগ ছিল। তাদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। প্রয়োজন ফুরোতেই তাকে সাজা দেওয়া হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেছেন ছত্রধর।

সুত্রঃ http://www.bengali.kolkata24x7.com/cm-threatened-by-maoist.html


রাজ্য রাজি, তবু কেন্দ্রের আপত্তিতে আটকে ভারতের মাওবাদী মুখপাত্রের মুক্তি

 gour-655x360

কেন্দ্রের আপত্তি। তাই রাজ্য রাজি থাকলেও মুক্তি পাচ্ছেন না রাজনৈতিক বন্দি মাওবাদী মুখপাত্র গৌর চক্রবর্তী। বাম আমলের শেষের দিকে UAPA ধারায় গ্রেফতার করা হয়েছিল স্বঘোষিত এই মাওবাদী মুখপাত্রকে। রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর রাজনৈতিক বন্দির স্বীকৃতি চেয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন গৌর চক্রবর্তী। হাইকোর্টে সেই আবেদনের বিরোধিতা করেছিল রাজ্য। কিন্তু, তারপর পরিস্থিতি বদলেছে,সম্প্রতি গৌর চক্রবর্তীর শারীরিক অবস্থা ও বয়সের কথা উল্লেখ করে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার আর্জি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দেন তাঁর স্ত্রী। একই আর্জি জানিয়ে APDR-র তরফে  চিঠি দেন সুজাত ভদ্র।

গৌর চক্রবর্তী স্ত্রীর আবেদনে সাড়া দিয়ে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার বিষয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করে রাজ্য। কিন্তু, যেহেতু তাঁকে UAPA ধারায় গ্রেফতার করা হয়েছিল তাই মুক্তি দেওয়ার জন্য কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অনুমতি চেয়ে চিঠি দেয়  রাজ্য সরকার। কিন্তু, রাজি হয়নি কেন্দ্র। কেন্দ্রের যুক্তি, UAPA তে আটক গৌর চক্রবর্তীকে ছেড়ে দিলে তেলেগু দীপক, ছত্রধর মাহাতোর মতো মাওবাদী নেতাদেরও মুক্তি দিতে হবে। যা কার্যত অসম্ভব। ফলে রাজ্যের সদ্দিচ্ছা থাকলেও, আপাতত জটিলতায় আটকে গৌর চক্রবর্তীর মুক্তি।

সুত্র – http://ntcn.in/