ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি’তে প্রতি বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় ‘ল্যাম্পপোস্ট’ এর পাঠচক্র

25359835_1980507585565466_410305843_n

জানতে চাই পাল্টাতে চাই বলে….. নিরন্তর বদলে চলা পৃথিবীকে বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়ায় আরও সুগঠিত, মানবিক, উন্নত শ্রেণী শোষণহীন দুনিয়ার দুয়ারকে অবারিত করবার, মুক্তির মন্ত্রে দীক্ষিত নতুন মানুষ হবার প্রত্যয়ে বছর বছর সবুজ আশ্বাস হয়ে ফিরবার পাঠ যা ‘অভাবের অভাব’ হয়ে ভরিয়ে দিবে সমাজ সভ্যতার ক্রমবিকাশের আগামী ধারাকে। এরই ক্ষুদ্র প্রয়াস আমাদের পাঠচক্র… প্রতি বুধবার সন্ধ্যা ৭ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তন-এ। আসুন দিন বদলের লড়াইয়ের বিশ্ববীক্ষা জানি বুঝি আর প্রয়োগ করি।

—-ল্যাম্পপোস্ট—-

Advertisements

রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠী নিয়ে ‘ল্যাম্পপোস্টের’ বিবৃতি

16831878_1891724551045436_2226135035126368921_n

 

খবর বিজ্ঞপ্তি

১৭/০৯/২০১৭

 

বিষয়: রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠীর উপর মায়ানমার রাষ্ট্রীয় বাহিনীর হামলা-হত্যা ও ভূমি থেকে উচ্ছেদের প্রতিবাদে নিন্দা জ্ঞাপন ও নিজেদের ভূমি রক্ষায় রাজনৈতিক সক্ষমতা অর্জনের আহ্বান।

পাহাড়ি ঢল-পাহাড় ধ্বস-বন্যাক্রান্ত আমাদের প্রান্তিক জনগোষ্ঠির রাষ্ট্রীয় ত্রাণ ও পুনর্বাসনের কোন সুবন্দোবস্ত না হতেই পাশ্ববর্তী দেশ মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় বাহিনী কর্তৃক রোহিঙ্গা প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর উপর আগুন সন্ত্রাস ও গণহত্যা- এরই প্রেক্ষিতে আমাদের দেশে প্রাণভয়ে আশা রোহিঙ্গা মানুষের অবস্থান ও উভয়ের নিরাপত্তা এবং এই ঘটনাকে ঘিরে বিশ্বরাজনীতিতে বিভিন্ন মেরুকরণ-করণীয় নির্ধারণ জটিল পরিস্থিতির জন্ম দিয়েছে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশ ও মায়ানমারও সাম্রাজ্যবাদের তাবেদার রাষ্ট্র। সাম্রাজ্যবাদের স্বার্থে দেশের জল-জঙ্গল-জমিন-খনি উজাড় করে দিতে উভয় রাষ্ট্রই ভূমি থেকে জনগণকে উচ্ছেদ করতে কম যান না। মায়ানমারের রোহিঙ্গাদের মতো আমাদের দেশেও সাঁওতাল জনগোষ্ঠী ও পাহাড়ে ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী আগুন-হত্যার স্বীকার। এ হলো রাষ্ট্রের শাসকশ্রেণীর সাথে ব্যাপক জনগণের দ্বন্দ্ব তথা শ্রেণীদ্বন্দ্ব। ধর্মের নামে যে তকমাই শাসকশ্রেণী প্রচার করুক না কেন- এ শ্রেণীযুদ্ধই। ফলে যে শ্রেণীযুদ্ধ শাসকশ্রেণী জনগণের উপর চাপিয়ে দিয়েছে তার নিষ্পত্তি হতে পারে জনগণের পাল্টা শ্রেণী লড়াই-সংগ্রাম গড়ে তুলবার মধ্য দিয়ে আর উভয় দেশের জনগণ পরস্পর পরস্পরকে সহযোগিতা করতে পারে একমাত্র স্ব-স্ব দেশে শ্রেণীসংগ্রামের মধ্য দিয়ে বিপ্লব সংঘটনের প্রক্রিয়ায়। আজ প্রান্তিক এই রোহিঙ্গা জনগণকে সঠিক পরীক্ষিত বৈজ্ঞানিক রাজনীতিকে (মার্কসবাদ-লেনিনবাদ-মাওবাদ) আত্মস্থ করে নিজেদের তৈরি করতে হবে এবং ঐ রাজনীতির আলোকেই বিশ্ব জনমত গড়ে তুলতে হবে ভূমির আধিকার রক্ষায় নচেৎ সাম্রাজ্যবাদ ও তাদের পদলেহী দালাল সরকারগুলোর মারফত গণস্বার্থের বিরুদ্ধে ব্যবহৃত হওয়া ছাড়া পথ থাকবে না আর নিজেদের মুক্তি হবে সুদূর পরাহত। তাই, আসুন শ্রেণী রাজনীতিকে ঊর্ধ্বে তুলে ধরি- জয় জনগণের হবেই।

বার্তা প্রেরক

(নাহিদ সুলতানা লিসা) ০১৭৫৭২৮৪৫৫৮

সম্পাদক- ল্যাম্পপোস্ট


কমরেড বেলা দত্তের মৃত্যুতে ল্যাম্পপোস্ট-এর শ্রদ্ধা নিবেদন

22008442_1951260405114737_1942113275502804514_n

 

খবর বিজ্ঞপ্তি

২৯/০৯/২০১৭

কমরেড বেলা দত্তের মৃত্যুতে ল্যাম্পপোস্ট-এর শ্রদ্ধা নিবেদন।

আজ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শুক্রবার সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে পশ্চিমবঙ্গের তেভাগা আন্দোলন ও নক্সালবাড়ি আন্দোলনের নেত্রী, নক্সালবাড়ি আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক কমরেড সরোজ দত্তের সহধর্মীনি ও সহযোদ্ধা, শহীদ সরোজ দত্ত স্মৃতিরক্ষা কমিটির আহ্বায়ক কমরেড বেলা দত্ত মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স ৯৪ বছর পূর্ণ করে ৯৫-এ পরেছিল। তিনি বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছিলেন এবং নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুর পর তাঁর দেহ কলকাতার পিজি হসপিটালে দান করা হয়, তিনি তাঁর চক্ষুও দান করে গেছেন। তথ্যসূত্র: কমরেড কোনাল দত্ত। ভারতবর্ষের কৃষি বিপ্লবে যে নতুন পথ কমরেড চারু মজুমদারের হাত ধরে রূপায়িত হয়েছিল তার প্রথম সারির সৈনিক যেমন কমরেড সরোজ দত্ত তেমনি বেলা দত্তের অবদানও উল্লেখযোগ্য। কমরেড বেলা দত্তের সাংগঠনিক কাজ, সাহস এবং আমৃত্যু আদর্শিক দৃঢ়তা নবীনদের কাছে শিক্ষণীয় হয়ে থাকবে এবং তাঁর এই চলে যাওয়ায় যে অসমাপ্ত কাজ রয়ে গেল তাকে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যে উপনীত করাই হবে তার প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করা ও শোককে শক্তিতে পরিণত করার সঠিক মাধ্যম। করেড বেলা দত্ত লাল সালাম।

মার্কসবাদ-লেনিনবাদ-মাওবাদ জিন্দাবাদ।

কমরেড চারু মজুমদারের শিক্ষা অমর হোক।

নয়াগণতান্ত্রিক বিপ্লব সফল হোক।

 

বার্তা প্রেরক

নাহিদ সুলতানা লিসা (০১৭৫৭২৮৪৫৫৮)

সম্পাদক – ল্যাম্পপোস্ট


পাহাড় ধ্বস ও বিদ্যমান আর্থ-সামাজিক অবস্থান নিয়ে গণমুক্তির গানের দল ও ল্যাম্পপোস্টের প্রেস বিজ্ঞপ্তি

13292749_10209590277699680_1526333557_n

খবর বিজ্ঞপ্তি       

 

                                         

জনাব/জনাবা,

গত মার্চ মাস থেকে দেশে বিদ্যমান বন্যা, পাহাড় ধ্বস ও বিদ্যমান আর্থ-সামাজিক অবস্থানগত বিষয় নিয়ে গত আগস্ট মাস থেকে গণমুক্তির গানের দল ও ল্যাম্পপোস্ট যৌথভাবে জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযান চালাচ্ছে। ব্যাপক জনগণের জ্ঞাতার্থে এই প্রেস বিজ্ঞপ্তি টেলি ও প্রিন্ট মাধ্যমে প্রচারের আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রচারপত্র বিজ্ঞপ্তির সাথে সংযুক্ত করা হলো।

বার্তা প্রেরক

নাহিদ সুলতানা লিসা

সম্পাদক- ল্যাম্পপোস্ট

যোগাযোগ- ০১৭৫৭২৮৪৫৫৮

21942124_1944662215816670_623260917_n

 


পুলিশের বাধা স্বত্বেও ল্যাম্পপোস্টের উদ্যোগে ‘ভারতীয় সম্প্রসারণবাদ প্রতিরোধ দিবস’ পালন

19748800_1909168722699353_1248831192428223887_n

ঢাকাঃ আজ ৫ জুলাই ‘ভারতীয় সম্প্রসারণবাদ প্রতিরোধ দিবস’-এ ল্যাম্পপোস্ট ‘সাম্রাজ্যবাদ সৃষ্ট তথাকথিত ক্রুসেড ও উগ্র জাতীয়তাবাদী ষড়যন্ত্রকে রুখে দিতে জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবকে বেগবান করুন’ শ্লোগান নিয়ে জাতীয় জাদুঘর গেটের সামনে আলোচনা সভা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করেছিল কিন্তু পুলিশী বাধায় অনুষ্ঠানটি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদী আলোচনা সভায় স্থানান্তরিত করতে বাধ্য হয়। প্রতিবাদী আলোচনায় বক্তারা বলেন- সাম্রাজ্যবাদের প্রেসক্রিপশনে সম্প্রসারণবাদের নিবিড় পরিচর্যায় এই দেশ এমন ফ্যাসিবাদী রূপ পরিগ্রহ করেছে যে, যেকোন ধরনের গণতান্ত্রিক মত প্রকাশের প্রক্রিয়াকে নির্মূলে এবং তাকে ধর্মীয় জঙ্গী ভাবমানসের বাতাবরণে ফেলে চিরতরে বন্ধ করে জনগণের ন্যূনতম গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণও নিশ্চিতভাবে বন্ধ করতে চায়। ফলে সাম্রাজ্যবাদের সেবাদাস জঙ্গীবাদ যেমন বেড়ে চলেছে রাষ্ট্রীয় ছত্রছায়ায় একই ভাবে এই রাষ্ট্র পুলিশীকরণের প্রক্রিয়ায় পুলিশী দমন-পীড়নকে বাড়বাড়ন্ত করতে জঙ্গীবাদ সহায়তা করছে। আসুন মানুষের উপর মানুষের শোষণমূলক এই সাম্রাজ্যবাদ -সম্প্রসারণবাদ-সামন্তবাদ ও আমলা মুৎসুদ্দি পুঁজিবাদী ব্যবস্থাকে চূর্ণ-বিচূর্ণ করে জনগণতান্ত্রিক রাষ্ট্র গঠনের নিমিত্তে জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবকে বেগবান করি। ‘সাম্রাজ্যবাদ সৃষ্ট তথাকথিত ক্রুসেড ও উগ্র জাতীয়তাবাদী ষড়যন্ত্রকে রুখে দিতে জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবকে বেগবান করুন’ শ্লোগানটিকে শ্রেণীসংগ্রামের অনিবার্যতায় প্রয়োগ করি। আসুন মার্কসবাদ-লেনিনবাদ-মাওবাদ ও কমরেড চারু মজুমদারের শিক্ষার আলোকে ঐতিহাসিক গণমুক্তির সংগ্রামগুলির অনুপ্রেরণায় আমরা ঐক্যবদ্ধ হই এবং সকল প্রতিক্রিয়ার সৌধকে গুঁড়িয়ে দিই। জয় জনতার হবেই। কারণ জনগণই ইতিহাসের স্রষ্টা।

প্রতিবাদী আলোচনায় অংশ নেন-

১. ফারহানা হক শামা, সাধারণ সম্পাদক-গণমুক্তির গানের দল

২. বিপ্লব ভট্টাচার্য, আহ্বায়ক- ছাত্র যুব আন্দোলন

৩. নাহিদ সুলতানা লিসা, সম্পাদক- ল্যাম্পপোস্ট

বার্তা প্রেরক

নাহিদ সুলতানা লিসা, সম্পাদক- ল্যাম্পপোস্ট