ভারতঃ ছত্তিশগড়ে ৫জন নারী গেরিলা সহ ৮জন মাওবাদী গেরিলাকে হত্যা করেছে পুলিশ

12705507_967713243282570_1616171540549132956_n

20160301014142_2758072f

naxal-palamu

আজ সকালে ছত্তিশগড়ে পুলিসের সঙ্গে কথিত ভুয়া সংঘর্ষের নামে হত্যা করা হয়েছে ৫ নারী সহ ৮ মাওবাদীকে। পুলিশ বলছে, এদের মধ্যে একজন স্থানীয় মাওবাদী কম্যান্ডার রয়েছে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী তেলেঙ্গানা- ছত্তিশগড় সীমানায় তেলেঙ্গানার গ্রে হাউন্ড ও ছত্তিশগড় পুলিসের যৌথ অভিযানে মৃত্যু হয়েছে ৮ মাওবাদীর। উদ্ধার হয়েছে AK 47 সহ ৮টি অস্ত্রশস্ত্র। পুলিশ বলছে, মাওবাদী নেতা হরি কিষাণ জঙ্গলে লুকিয়ে আছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে তারা অভিযান চালায়। পুলিশ বলছে, বন্দুক যুদ্ধে নিহতদের মধ্যে তেলেঙ্গনা রাজ্য কমিটির সম্পাদক মাওবাদী নেতা হরিভূষণ ওরফে নারায়ণ ও ভেঙ্কাটাপুরাম এরিয়া কমিটির সম্পাদক ভীরাইয়া থাকতে পারে।

কিন্তু প্রতিবারের মত এবারেও প্রশ্ন উঠছে সংঘর্ষে ৮ মাওবাদী নিহত হল অথচ পুলিসের একজনেরও মৃত্যু হল না? ফলে প্রশ্ন উঠবে আদৌ এটা সত্যিকারের সংঘর্ষ না সংঘর্ষের নামে ঠান্ডায় মাথায় খুন?

অনুবাদ সূত্রঃ http://www.ndtv.com/india-news/8-maoists-including-5-women-killed-in-chhattisgarh-telangana-joint-op-1282728

Advertisements

ভারতঃ বস্তারে কথিত এনকাউন্টারের নামে ৪ মাওবাদীকে হত্যা করেছে পুলিশ!

naxals-main

ভারতের ছত্তিশগড় রাজ্যের বিজাপুর জেলায় বাস্তারের একটি জঙ্গলে পুলিশের সঙ্গে কথিত এনকাউন্টারে চার মাওবাদী নিহত হয়েছেন। পুলিসের বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মাওবাদী দমন ইউনিটের সঙ্গে আজ শুক্রবার সংঘর্ষ হয় মাওবাদীদের। আর তাতেই নিহত হয় এই ৪ মাওবাদী গেরিলা। মিডিয়ার কাছে অন্তত এমনটা দাবি করেছে পুলিস। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে জানানো হয়, আজ ভোরে রাজ্যের রাজধানী রায়পুর থেকে প্রায় ৪৭০ কিলোমিটার দূরে বিজাপুরে এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে। জেলা পুলিশ-প্রধান কানাই লাল ধ্রুব বলেন, তুমুল বন্দুকযুদ্ধের পর এক নারী ও তিনজন পুরুষ মাওবাদীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে চারটি আগ্নেয়াস্ত্র ও চারটি চাইনিজ হাত-গ্রেনেড উদ্ধার হয়েছে। পুলিশের ভাষ্য, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালাতে গেলে তাদের সঙ্গে মাওবাদীদের বন্দুকযুদ্ধ হয়।

উল্লেখ্য যে, গত সোমবার সিপিআই-মাওবাদী কেন্দ্রীয় জোনাল মুখপাত্র প্রমজিত গত শুক্রবারে আওরঙ্গবাদে ৪ মাওবাদীকে হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। তিনি অভিযোগ করেন, তাদের ৪ সহকর্মীকে নিরাপত্তা কর্মীরা গ্রেফতার করে ভুয়া এনকাউন্টারের নামে হত্যা করেছে। প্রমজিত বলেন, কমরেডদের আত্মোৎসর্গ কখনই বৃথা যাবে না এবং পুলিশের উপরই এর প্রতিশোধ নিতে হবে।

অন্যদিকে সিপিআই মাওবাদীর এক সাব জোনাল কমান্ডারকে গ্রেফতার করল ঝাড়খণ্ডের পুলিস। জগনারায়ণ যাদব ওরবে বিশালজি নামের ওই মাও নেতার মাথার দাম ছিল ৫ লক্ষ টাকা।

অনুবাদ সূত্রঃ http://www.thehindu.com/news/national/other-states/four-maoists-killed-in-bastar-encounter/article8111181.ece


ভারতঃ ছত্তিশগড়ের কোন্দগাঁওতে ভুয়া সংঘর্ষে ২ মাওবাদীকে হত্যা

কোন্দগাঁওতে ভুয়া সংঘর্ষে ২ মাওবাদীকে হত্যা করার স্থান

কোন্দগাঁওতে ভুয়া সংঘর্ষে ২ মাওবাদীকে হত্যা করার স্থান

ছত্তিশগড়ের কোন্দাগাঁও জেলায় পুলিসের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন ২ মাওবাদী। মিডিয়ার কাছে অন্তত এমনটাই দাবি করেছে পুলিস। অন্যদিকে সুকমায় পুলিস গ্রেফতার করেছে ১ মাওবাদীকে। মানবাধীকার কর্মীদের অভিযোগ একদিকে ভুয়ো আত্মসমর্পণের ঘোষণা অন্যদিকে মাওবাদীদের ভুয়ো সংঘর্ষে হত্যা করার মাধ্যমে পুলিস আসলে ছত্তিশগড়ে খনিজ সম্পদ লুটের করপোরেটদের নীল নকশাকে রূপ দিতে চাইছে।

অনুবাদ সূত্রঃ http://www.thehindu.com/news/national/other-states/naxals-gunned-down-in-chhattisgarhs-kondagaon-district/article8068849.ece


যুক্তরাষ্ট্রে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা

file (1)

যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপি রাজ্যে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে স্থানীয় এক গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে।

শনিবার মিসিসিপির হ্যাটিসবার্গে এ ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় টেলিভিশন স্টেশন ডাব্লিউডিএএম জানিয়েছে।

ঘটনার পর পুলিশেরই একটি গাড়ি নিয়ে গুলিবর্ষণকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। পরে স্থানীয় একটি রেল গুদামের কাছে পুলিশের গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ডাব্লিউডিএএম জানিয়েছে, সন্দেহভাজনদের খোঁজে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাগুলো ওই এলাকায় তল্লাশি শুরু করেছে।

এলাকাটি মিসিসিপির জ্যাকসন শহর থেকে ১২৯ কিলোমিটার দক্ষিণপূর্বে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ঘটনার বিষয়ে পুলিশের এক মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি, অপরদিকে হ্যাটিসবার্গ পুলিশ বিভাগের সঙ্গে ঘটনা নিশ্চিত করতে তাৎক্ষণিকভাবে যোগাযোগও করা যায়নি।

প্রকাশিত খবর অনুযায়ি, গুলিবিদ্ধ পুলিশ কর্মকর্তাদের হ্যাটিসবার্গের ফরেস্ট জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তাদের মৃত ঘোষণা করা হয়।

ঘটনাস্থল থেকে প্রতিবেদন দেওয়া ডাব্লিউডিএএম-র সাংবাদিক রায়ান মুর এক টুইটার বার্তায় জানিয়েছেন, একটি ট্র্যাফিক সিগন্যালে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধ হন, এরপর সন্দেহভাজন গুলিবর্ষণকারীরা পুলিশের একটি গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়।

সূত্রঃ http://bangla.bdnews24.com/world/article966196.bdnews