ভারতের ছত্তিসগড়ে প্রতিদিন চলছে মাওবাদী–সেনা সংঘর্ষ

maoist_naxal_20091026-e

প্রায় প্রতিদিন মাওবাদী–সেনা সংঘর্ষ চলছে ছত্তিসগড়ে। বুধবার মাওবাদী অধ্যুষিত দান্তেওয়াড়ায় সংঘর্ষে আহত হয়েছেন এক জওয়ান। এক মাওবাদী গ্রেপ্তার হয়েছে বলে সেনা সূত্র জানাচ্ছে।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দান্তেওয়াড়া এবং বস্তার জেলার মাঝে বারসুর থানা এলাকার পিছিকোডার গ্রাম লাগোয়া জঙ্গলে অভিযান চালায় সিআরপিএফ, এসটিএফ এবং ডিস্ট্রিক্ট রিজার্ভ গার্ড বা ডিআরজি। পিছিকোডার জঙ্গলের দিকে দল এগোতেই গুলি ছুড়তে শুরু করে মাওবাদীরা। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর মাওবাদীরা পালাতে সক্ষম হয়।

আহত ডিআরজি–র কনস্টেবল ঝুমর মাণ্ডবীকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল এবং পরে এয়ারলিফ্‌ট করে রায়পুরের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জওয়ানদের কাছে মেলা তথ্য এবং ঘটনাস্থলে পাওয়া রক্তের দাগ দেখে মনে হচ্ছে কমপক্ষে ৪ মাওবাদী খতম হয়েছে। এ কথা জানিয়েছেন দান্তেওয়াড়ার পুলিস সুপার কামলোচন কাশ্যপ। তবে তাদের দেহ না মেলায় তল্লাশি চলছে। তল্লাশিতে এ পর্যন্ত একটি টুয়েল্‌ভ বোরের বন্দুক, একটি ১০ কেজি বোমা, মাওবাদীদের তিনটি ইউনিফর্ম, তিনটি ওয়াকিটকি এবং মাওবাদী পুস্তিকা উদ্ধার হয়েছে।

অন্যদিকে, বিজাপুর জেলার মিরতুর থানা এলাকার তিমেনার জঙ্গলে সিআরপিএফ, ডিআরজি এবং জেলা পুলিসের টহলদারির সময় ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা। তারপরই বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পাল্টা জবাব দেয় বাহিনীও। সংঘর্ষের শেষে সুকালু কুঞ্জাম নামে এক মাওবাদীকে গ্রেপ্তার করে বাহিনী। বিস্ফোরণস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি ৫ কেজির টিফিন বোমা, দুটি ব্যাগ, একটি রেডিও, একটি মাওবাদী ব্যানার এবং একটি মাওবাদী পুস্তিকা। এ কথা জানান বিজাপুরের অতিরিক্ত পুলিস সুপার মোহিত গর্গ।

সূত্রঃ http://www.kalerkantho.com/online/world/2017/05/25/501276