নেপালে নতুন সংবিধানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

0,,18669072_303,00

নেপালের পার্লামেন্টে নতুন সংবিধান অনুমোদিত হয়েছে বলে জানিয়েছে গণমাধ্যম।

বুধবার নতুন সংবিধানের পক্ষে ৫০টি ও বিপক্ষে মাত্র ২৫টি ভোট পড়ে। নতুন এই সংবিধানের বিরুদ্ধে নেপালে বিক্ষোভ করছে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলো। বিক্ষোভে এরই মধ্যে অন্তত ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় গণমাধ্যম। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলোর দাবি নতুন এই সংবিধানের আইনগুলো বৈষম্যমূলক।

এদিকে, দেশটিকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণার দাবিতে বিক্ষোভ করছে হিন্দু সংগঠনগুলো। নতুন সংবিধান অনুযায়ী সাতটি প্রদেশে বিভক্ত হবে নেপাল।


নেপালের মাওবাদী সংবাদঃ লিপুলেক চুক্তির বিরুদ্ধে সিপিএন-মাওবাদী ক্যাডারদের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

jinping-main (1)

কাঠমান্ডু, ২৮শে জুন– ভারত ও চীনের মধ্যে স্বাক্ষরিত লিপুলেক চুক্তি বাতিলের দাবীতে কাঠমান্ডুর সুন্ধরাতে সিপিএন-মাওবাদীর ডাকা প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশ বাধা দেয় ও প্রায় তিন ডজন ক্যাডারকে আটক করে।

কাঠমান্ডুর টেকুতে মেট্রোপলিটান পুলিশ রেঞ্জ প্রদত্ত তথ্য অনুযায়ী, সিপিএন-মাওবাদী এর পলিটব্যুরো সদস্য তিলক পোখরেল সহ প্রায় ৩২ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশের সুপারিন্টেন্ডেন্ট বিশ্ব রাজ পোখরেল বলেন, কাঠমান্ডুতে কোন ধরনের প্রতিবাদ সমাবেশ করার অনুমতি নেই কারণ সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার পর কাঠমান্ডুকে জরুরী জোন হিসেবে ঘোষণা করে হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে বলে তিনি জানান।

সূত্রঃ

http://www.ekantipur.com/2015/06/24/capital/cpn-maoist-cadres-stage-protest-against-lipulek-pact/406992.html

 


ভারতের ছত্তিশগড়ে ১০০ জন মাওবাদীর হামলায় ৭ পুলিশ নিহত, আহত ১২

abuhmarh

embed1

ভারতের ছত্তিশগড় রাজ্যে মাওবাদীদের হামলায় পুলিশের সাত এসটিএফ জওয়ান নিহত হয়েছে। সংঘর্ষে আহত হয়েছে অন্য ১২ জন পুলিশ।

আজ (শনিবার) ছত্তিশগড়ের সুকমা জেলার চিন্তাগুফার পিড়মেল-পোলামপল্লি এলাকায় পেডমাল জঙ্গলে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

ছত্তীসগঢ় পুলিশের নকশাল দমন শাখার প্রধান, অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল আর কে ভিজ জানিয়েছেন, পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের একটি দল শনিবার সুকমা জেলার চিন্তাগুফার পিড়মেল-পোলামপল্লি এলাকায় টহল দিচ্ছিলেন। রাজ্য পুলিশের বিশেষ বাহিনীর (এসটিএফ) ৬১ জন জওয়ানদের ওই  দলটি পিডমেল জঙ্গল হয়ে দরনাপাল অঞ্চলের দিকে যাচ্ছিলেন । অন্ধ্র প্রদেশের সীমানা এলাকায়  অপারেশনের জন্য রওনা হয়েছিলেন তারা। খবর পেয়ে অতর্কিত হামলা চালায় মাওবাদীরা, এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে সশস্ত্র মাওবাদীরা। কিছু বুঝে ওঠার আগেই মৃত্যু হয় ওই জওয়ানদের। জওয়ানরা পাল্টা জবাব দিলেও গভীর জঙ্গলের আড়ালে পালাতে সক্ষম হয় মাওবাদীরা। আহত জওয়ানদের আকাশপথে চপারে করে দ্রুত চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশের এডিজি (অ্যান্টি মাওয়িস্ট অপারেশন) আর কে ভিজ জানিয়েছেন।

জঙ্গলে তল্লাশি অভিযান চালানোর সময় প্রায় ১০০ জন মাওবাদী তাদের উপর হামলা চালায়। এই সময় এসটিএফ জওয়ানদের সঙ্গে মাওবাদীদের মধ্যে প্রায় টানা দু’ঘন্টা ধরে বন্দুক যুদ্ধ চলে। নিহত সাত পুলিশ কর্মীরা হল, প্লাটুন কমান্ডার শঙ্কর রাও, হেডকনস্টেবল রোহিত সোধি এবং মনোজ বাঘেল, কনস্টেবল মোহন ভিকে, রাজকুমার মারকাম, কিরণ দেশমুখ এবং রঞ্জন টিকাম।

২০১০ সালের এপ্রিলে ছত্তিশগড়ের সুকমাতে নকশালপন্থীদের হামলায় ৭৪ জন সিআরপিএফ জওয়ান নিহত হয়। ২০১৩ তে রাজ্যে কয়েকজন শীর্ষ কংগ্রেস নেতাসহ ২৫ জনকে হত্যা করে মাওবাদীরা।

সুত্র – http://indianexpress.com/article/india/india-others/seven-stf-personnel-killed-11-injured-in-maoist-attack-in-chhattisgarh/