কলম্বিয়ায় মার্কসবাদী গেরিলা দল ‘ELN’ এর হামলায় ৫ সেনা নিহত, আহত ১০

ELN

মার্কসবাদী বিদ্রোহী গোষ্ঠী ইএলএন এর বোমা হামলায় অন্তত ৫ জন কলম্বিয়ান সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ সেনা।

গত মঙ্গলবার ভেনিজুয়েলা সীমান্তবর্তী সানটানদার প্রদেশে মিলিটারি গাড়ি লক্ষ্য করে এই বোমা হামলা চালানো হয়।

সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভেনেজুয়েলার সীমান্তবর্তী উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় নর্টে দে সেন্টাডারে একটি কৌশলগত অভিযানের সময় ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

হাতে তৈরি একটি বিস্ফোরক দিয়ে ওই বিস্ফোরক ঘটানো হয়। তবে এর চেয়ে বেশি কোনো তথ্য দেয়নি সেনাবাহিনী।

দেশটির মার্কসবাদী বিদ্রোহী গ্রুপ ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি বা ইএলএন আগামী মাসের নির্বাচনকে সামনে রেখে একতরফা যুদ্ধবিরতি ঘোষণার একদিন পর এই হামলার ঘটনা ঘটলো। তবে কেউই ওই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস ওই হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি তার টুইটারে অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, যারা ওই হামলার সঙ্গে জড়িত তাদের জবাবদিহিতার মধ্যে আনা হবে।

এছাড়াও প্রথমবারের মতো দুপক্ষের যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার পর জানুয়ারিতে ইএলএন এর সঙ্গে শান্তি আলোচনা বাতিল করেন কলম্বিয়া সরকার।

 

Advertisements

কলম্বিয়ায় মার্কসবাদী ইএলএন গেরিলাদের সঙ্গে সংঘর্ষে সেনা কর্মকর্তা নিহত

colombia-eln-guerrillas-train

বোগোটা, ১৭ জুলাই, ২০১৭: কলম্বিয়ায় মার্কসবাদী ইএলএন গেরিলাদের সঙ্গে সংঘর্ষে এক সৈন্য নিহত হয়েছে। রোববার দেশটির সেনাবাহিনী একথা জানিয়েছে।
দেশটির সবচেয়ে বড় বিদ্রোহী গোষ্ঠী ফার্কের সঙ্গে সরকারের শান্তি চুক্তির পর এ ঘটনা ঘটল।

ইএলএন একমাত্র বিদ্রোহী দল যারা এই চুক্তির পরও দেশটিতে বিদ্রোহী তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। খবর এএফপি’র।

সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানায়, বাজো কাউকা এলাকায় সেভেনথ আর্মি ইউনিট ফোর্সের সঙ্গে ইএলএন যোদ্ধাদের এ সংঘর্ষ হয়। এতে সেনা কর্মকর্তা জন ফ্রেডি গোমেজ সালাজার নিহত হন।

সূত্রঃ http://www.bssnews.net/bangla/newsDetails.php?cat=3&id=410375&date=2017-07-17


কলম্বিয়ার বামপন্থী গেরিলা দল ELN এর সঙ্গে ফের আলোচনা শুরু

1495010000_0

কলম্বিয়া সরকার ও বামপন্থী ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি গেরিলাদের মধ্যে মঙ্গলবার আলোচনা শুরু হয়েছে। দেশটির নিত্যদিনের সংঘাত বন্ধে একটি শান্তি চুক্তিতে পৌঁছানোর লক্ষ্যে তারা এ আলোচনা শুরু করে বলে জানায় বার্তা সংস্থা এএফপি।

কলম্বিয়ার অর্ধ শতাব্দী ধরে চলা সংঘাত নিরসনের লক্ষে ইকুয়েডরের রাজধানীতে উভয় পক্ষ আবারো আলোচনার টেবিলে ফিরে যায়। উল্লেখ্য, দীর্ঘ চার বছর ধরে আলোচনার পর গত নভেম্বর মাসে কলম্বিয়ার বৃহত্তম মার্কসবাদী গেরিলা দল ফার্ক সরকারের সঙ্গে একটি শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করে।

ফার্কের মতো ইএলএনের সঙ্গে একই শান্তি চুক্তি করার লক্ষ্যে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট রাফায়েল কোরেয়ার আমন্ত্রণে কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোসের প্রতিনিধি দল ও ইএলএনের মধ্যে আবারো আলোচনা শুরু করা হলো। গত ফেব্রুয়ারি মাসে তাদের মধ্যে প্রথম দফার আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

ইএলএনের শান্তি আলোচক পাবলো বেলট্রান বলেন, ‘আমি আশা করছি আলোচনার মাধ্যমে দ্বি-পাক্ষিক অস্ত্র বিরতির ব্যাপারে আমরা একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে পারবো।’

এদিকে সরকারও দেশটির সংঘাত নিরসনের অঙ্গীকার করেছে। গ্রামাঞ্চলের ভূমি অধিকারের জন্য ফার্ক ও ইএলএন অস্ত্র হাতে তুলে নেয়ায় ১৯৬৪ সালে কলম্বিয়ায় সংঘাত ছড়িয়ে পড়ে। এ সংঘাতে দেশটিতে কমপক্ষে ২ লাখ ৬০ হাজার লোক প্রাণ হারিয়েছে এবং ৭০ লাখেরও বেশী লোক গৃহহীন হয়েছে। এএফপি।

 


কলম্বিয়ায় বামপন্থি গেরিলা দল ELN এর সর্বশেষ নেতা নিহত

ইএলএন গেরিলা

কলম্বিয়ায় নিরাপত্তা বাহিনীর এক অভিযানে কলম্বিয়ার বামপন্থি গেরিলা দল ‘ লিবারেশন আর্মি-ELN’ এর সর্বশেষ নেতা নিহত হয়েছেন।  ২৩শে মার্চ, বৃহস্পতিবার, দেশটির প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস একথা জানিয়েছেন।

সান্টোশ টুইটারে লিখেন, ‘ইএলএন এর জোসে এন্তনিও গালান ফ্রন্টের প্রধান নেতা আলভারো গেলভেস ওর্তেগা ওরফে জাইরোকে দমন করায় আমি আমাদের পাবলিক ফোর্সকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

কলম্বিয়ার জাতীয় পুলিশের পরিচালক জেনারেল জর্জ নিয়েতো টুইটারে লিখেন দেশের উত্তরাঞ্চলীয় বলিভার এলাকার উত্তরে এই অভিযান চালানো হয়। এতে ওর্তেগা নিহত হয়েছেন।

বামপন্থী ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি (ইএলএন) ও সান্টোশ সরকারের মধ্যে ফেব্রুয়ারি মাস থেকে শান্তি আলোচনা চলছে।

উভয়পক্ষের মধ্যে অস্ত্রবিরতি হয়নি। এর মধ্যেই সান্টোশ আলোচনার মাধ্যমে দেশে ‘সম্পূর্ণ শান্তি’ স্থাপনে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

কলম্বিয়া সরকারের একদিকে শান্তি প্রচেষ্টার নাম, আর অপরদিকে হত্যা করা হয়েছে এই বামপন্থি গেরিলা নেতাকে।

অথচ শান্তির জন্যেই প্রেসিডেন্ট সান্টোশকে নোবেল দেয়া হয়েছিল। আর তিনিই কিনা শান্তি আলোচনার নামে এই বামপন্থি গেরিলা নেতাকে হত্যার নির্দেশনা দিয়েছিলেন।

সূত্রঃ http://www.gulf-times.com/story/539739/ELN-leader-killed-by-Colombian-security-forces


কলম্বিয়ার বামপন্থী গেরিলা দল ‘ইএলএন’ এর গেরিলা নেতা ফ্রাংকলিন নিহত

41d7828e6ebdbc04513f757084707c211287f6ee

আজ (রোববার) কলম্বিয়ার সামরিক বাহিনীর হাতে দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে একজন বামপন্থী গেরিলা নেতাসহ ৪জন নিহত হয়েছে।  দেশটির চোকো অঞ্চলে সরকারি বাহিনীর অভিযানের সময় ফ্রাংকলিন ওরফে এল মোচো (৫৫) নামে পরিচিত এ গেরিলা নেতা নিহত হয়।

ফ্রাংকলিনের নিহত হওয়ার ঘটনাকে কলাম্বিয়ার বামপন্থী গেরিলা দল ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি বা ইএলএন’র জন্য বড় বিপর্যয় হিসেবে উল্লেখ করেছে সামরিক বাহিনী।  সামরিক কর্তৃপক্ষ টুইটারে এক বার্তায় বলেছে, ইএলএন-কে অর্থ যোগানো এবং দলটির পরিচালনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন ফ্রাংকলিন।

ফ্রাংকলিনের স্থলাভিষিক্ত জোটানো ইএলএন’র জন্য সহজ হবে না বলে কলাম্বিয়ার সামরিক বাহিনী মনে করছে। ফার্কের পরই ইএলএন-কে কলাম্বিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম মার্কসবাদী গেরিলা দল হিসেবে মনে করা হয়।  গত প্রায় ২৫ বছর ধরে ইএলএন’র সঙ্গে জড়িত ছিলেন ফ্রাংকলিন।

 


কলম্বিয়াঃ মার্কসবাদী গেরিলা দল ELN এর সদস্য সন্দেহে চাষী, কমিউনিস্ট অধ্যাপক সহ গ্রেফতার ১৫

2015-07-03t013641z_2_lynxnpeb6201p_rtroptp_4_colombia-crime_crop1436432279878.jpg_1718483346

বোগোতা, ৮ই জুলাই (UPI) – কলম্বিয়া জাতীয় পুলিশ বোগোতায় সম্প্রতি দুটি ছোট বোমা হামলার সম্ভাব্য সংযোগ থাকার সন্দেহে ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে ঘোষণা করেছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ছিল ছাত্র নেতৃবৃন্দ, চাষি, সাংবাদিক, তিন নারী, দুই জন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এবং দুই জন জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা। এদের কলম্বিয়ার বামপন্থী দ্বিতীয় বৃহত্তম মার্কসবাদী গেরিলা দল ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি(ELN) সদস্য হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়েছে, যারা বোগোতায় গত বছরের আক্রমণে জড়িত ছিল। পুলিশের ভাষ্য মতে, এরা সকলেই ডেভিড কামিলো রদ্রিগেজ হেরনান্দেজ, ওরফে এল প্রফে‘র নেতৃত্বাধীন ELN এর একটি গোপন সেলের সদস্য। বোগোতায় গত বৃহস্পতিবার দুটি ছোট বোমা বিস্ফোরণে প্রায় আট জন মানুষ আহত হয়, তবে কেউই গুরুতর আহত ছিল না। প্রতিরক্ষা সচিব লুইস কার্লোস ভিলেগাস বলেন- বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ভয় দেখানোই তাদের উদ্দেশ্য ছিল। এদিকে মানবাধিকার সংস্থা গুলো তাদের গ্রেফতারের সমালোচনা করেছে।

prov

সূত্রঃ

http://www.upi.com/Top_News/World-News/2015/07/08/15-arrested-over-Bogota-bombings/9051436371191/

http://www.telesurtv.net/english/news/Colombian-Authorities-Arrest-Suspects-in-Bogota-Bombings-20150709-0005.html


কলম্বিয়ার মার্কসবাদী গেরিলা সংগঠন ‘ফার্ক'(FARC) সংবাদ –

farc_139720
ফার্ক গেরিলাদের বিরুদ্ধে সেনা অভিযান
farc
farc-jpg
ফার্ক গেরিলা
কলম্বিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে সামরিক বাহিনীর অভিযানে সোমবার অন্তত মার্কসবাদী ৫ ফার্ক গেরিলা নিহত হয়েছে। এ ঘটনা মার্কসবাদী সংগঠনটির সঙ্গে সরকারের চলমান শান্তি আলোচনাকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে।
সামরিক সূত্রের বরাতে বুধবার বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, প্রত্যন্ত চোকো এলাকায় এই বোমা হামলায় গেরিলা যোদ্ধারা নিহত হয়। তবে ওই হামলা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানানো হয়নি।
হাভানায় মার্কসবাদী রিভোল্যুশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়া (ফার্ক)-এর সঙ্গে সরকারের দ্বিপক্ষীয় শান্তি আলোচনা অব্যাহত থাকলেও সাম্প্রতিক দিনগুলোতে সরকারি সেনারা মার্কসবাদী গেরিলা সংগঠনটির ওপর সামরিক হামলা চালিয়ে আসছে।
প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্টোস গত মাসে মার্কসবাদী সংগঠনটির ওপর বিমান হামলার নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর এটাই সবচেয়ে বড় ধরনের হামলার ঘটনা।
গেরিলাদের হামলায় ১১ সেনা নিহত হওয়ার পর এপ্রিল মাসে এ অভিযান শুরু হয়।
এখন পর্যন্ত গেরিলাদের ওপর সেনাবাহিনীর চলমান অভিযানে ৪০ গেরিলা নিহত হয়েছে।
গত সপ্তাহে সেনাবাহিনীর বিমান হামলায় ২৬ গেরিলা নিহত হওয়ার পর ফার্ক শুক্রবার অস্ত্রবিরতি প্রত্যাহার করে এবং উভয়পক্ষের মধ্যে শান্তি আলোচনা স্বল্পসময়ের জন্য স্থগিত হয়ে যায়।
eln_guerrillas_s_youtube-770x433

ELN গেরিলা

এদিকে – কলম্বিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম বিদ্রোহী গেরিলা গ্রুপ ELN , সেনা আক্রমণে ফার্কের ২৬ গেরিলা নিহত হওয়ার পর, ফার্কের একতরফা যুদ্ধবিরতি প্রত্যাখ্যান ও পুনরায় আক্রমণ শুরু করায়, ELN- ফার্কের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। ELN এর ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি, সরকারী সেনাদের হাতে নিহত ফার্ক গেরিলাদের পরিবার ও  বন্ধুদের প্রতি সমবেদনা ও সংহতি জানিয়ে তাদের ওয়েবসাইটে বিবৃতি দিয়েছে।

ELN , কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস সরকারের সমালোচনা করে বলে যে, “সামরিক সুবিধার জন্য”ই সরকার যুদ্ধ বিরতি করেছিল।

ফার্ক এবং ELN ১৯৬৪ সাল থেকে কলম্বিয়া রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে।

সুত্রঃ http://colombiareports.com/eln-rebels-support-farc-in-resuming-attacks-against-colombian-state/