বিশ্বভারতীতে(শান্তিনিকেতন) আক্রান্ত নকশালপন্থী ছাত্ররা

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভেতরেই নকশালপন্থী একদল ছাত্র ছাত্রীকে মারধোর ও হেনস্থার অভিযোগ উঠলো তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ শনিবার ক্যাম্পাসের ভেতর ঢুকে তৃণমূলিরা আক্রমণ করে একদল ছাত্রকে, এইসব ছাত্র ছত্রীরা রাজ্যের সাম্প্রতিক বেশ কিছু বিষয় যেমন ভাঙড়ে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস, ভাবাদিঘি নিয়ে রাজ্য সরকারের ভূমিকার সমালোচনা করে বিশ্বভারতীর ক্যাম্পাসের ভেতরে পোষ্টার লাগিয়েছিল। আক্রমণের ফলে আহত হয়ে বেশ কয়েকজন ছাত্র হাসপাতালে ভর্তিও হয়েছে। আয়সা, পিডিএসএফ প্রমুখ ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে এক প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়েছে বিশ্বভারতী চত্ত্বরের ভেতর যেভাবে নারী পুরুষ নির্বিশেষে তৃণমূলিদের আক্রমনের শিকার হচ্ছে তাতে এ রাজ্যের শিক্ষাভূমির সুনাম হারিয়ে, বিশ্ববিদ্যালয় গুলিও ক্রমশ গুন্ডাদের আশ্রয়স্থল হয়ে উঠতে শুরু করেছে। আগামী মঙ্গলবার এর প্রতিবাদে সকল ছাত্র সমাজকে প্রতিবাদী মিছিলে হাঁটার আহ্বান করেছে aisa, pdsf, usdf সহ একাধিক নকশালপন্থী ছাত্র সংগঠন।

সূত্রঃ satdin.in


কলকাতাঃ অধ্যাপক সাইবাবাসহ অন্যান্যদের মুক্তির দাবীতে ছাত্রদের বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

গতকাল শুক্রবার ১০/০৩/২০১৭তারিখে কলকাতায় তিন বাম ছাত্র সংগঠন USDF, AISA ও PDSF এর ডাকে দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জি এন সাইবাবা, জে এন ইউ’র ছাত্র হেম মিশ্র, সাংবাদিক ও মানবধিকার কর্মী প্রশান্ত রাহি এবং দুজন আদিবাসী কৃষক মহেশ তিরকি ও পান্ডু নাড়টের ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি(মাওবাদী)’র সাথে সংযুক্ত থাকার অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্র বিরোধী UAPA আইন বাতিল করার দাবিতে মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়।

এ ছাড়াও মিছিলে কারখানার ম্যানেজার খতমে অভিযুক্ত মারুতি শ্রমিকদের সাজার বিরুদ্ধে আওয়াজ ওঠে।

এসময় বিক্ষোভকারীরা বিকেল ৪টে নাগাদ কলেজ স্ট্রীট মোড় অবরোধ করে।

বিক্ষোভকারিরা- দেশের জল জঙ্গল জমি বিদেশী লুটেরাদের হাতে তুলে দেওয়া, কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের শ্রমিক কৃষক বিরোধী কার্যকলাপ এবং ভাঙ্গর সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিরোধী মত দমনে UAPA আইন প্রয়োগ করার তীব্র সমালোচনা করেন।