পেট্রোলিয়াম পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে সিপিএন মাওবাদী’র একদিনের সাধারণ ধর্মঘট পালিত

ap_625109678972-800x445

গতকাল বৃহস্পতিবার কাঠমান্ডু উপত্যকায় নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন মাওবাদী’র ডাকা হরতাল আংশিকভাবে জন জীবনকে প্রভাবিত করেছে। পেট্রোলিয়াম পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং মুদ্রাস্ফীতির বিরুদ্ধে ১ দিনের এই ধর্মঘট পালিত হয়। এসময় বাজার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে।

সিপিএন মাওবাদী মুখপাত্র খাদকা বাহাদুর বিশ্বকর্মা বলেন, ‘সরকার যদি সাম্প্রতিক মূল্যবৃদ্ধি প্রত্যাহার করতে ব্যর্থ হয় তবে তারা আরো প্রতিবাদ কর্মসূচীর আয়োজন করবে।‘

এদিকে, গতকাল সকাল থেকে চাঁদ নেতৃত্বাধীন মাওবাদী দলের সঙ্গে যুক্ত কয়েকজন যুবককে রতন পার্ক থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্রঃ http://kathmandupost.ekantipur.com/news/2016-12-22/strike-effect-dismal-in-valley.html

 

Advertisements

নেপালঃ Ncell এর মোবাইল টাওয়ারে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ২ মাওবাদী নেতা আটক

13062016015514110620160745131-1000x0-1000x0

অনূদিতঃ

গতকাল সকালে নেপালের ম্যাগদি জেলার বেনি পৌরসভায় Ncell মোবাইল টাওয়ারে অগ্নিসংযোগের হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে জেলার দুই মাওবাদী নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন মাওবাদী দলের সঙ্গে যুক্ত লালু কিষাণ ওরফে আকাশ এবং পাদাম পুন ওরফে ফিল্টারকে এ সময় জেলা সদর থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে, বেনি পৌরসভা -4 এর বাঞ্ছারেদিল এ দেশের বেসরকারি খাতের শীর্ষ টেলিযোগাযোগ কোম্পানীর টাওয়ারে অগ্নিসংযোগ করা হয়।  পুলিশ দাবি করেছে যে, চাঁদ নেতৃত্বাধীন দল শনিবার সন্ধ্যায় অগ্নিসংযোগের এই হামলা চালিয়েছে।  ঘটনায়, একটি জেনারেটর ধংস হয়ে যায়।  এর আগে, আরেক মাওবাদী নেতা গোপাল শর্মাকে রোববার মামলার তদন্ত জন্য আটক করা হয়।

সূত্রঃ http://thehimalayantimes.com/nepal/2-maoist-leaders-held-ncell-tower-arson-myagdi/


নেপালঃ সিপিএন মাওবাদী’র সশস্ত্র পদক্ষেপ অব্যাহত

A vehicle, belonging to the Nuwakot-based World Vision International Nepal's Office, torched by Netra Bikram Chand-led CPN Maoist cadres, in Bidur-4 of the district, on Saturday, June 11, 2016. Photo: RSS

A vehicle, belonging to the Nuwakot-based World Vision International Nepal’s Office, torched by Netra Bikram Chand-led CPN Maoist cadres, in Bidur-4 of the district, on Saturday, June 11, 2016. Photo: RSS

অনূদিতঃ 

চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন মাওবাদী ক্যাডাররা ওয়ার্ল্ড ভিশন এর নুওয়াকোট অফিসে আক্রমণ করেছে

গত শনিবার রাতে নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন মাওবাদী ক্যাডাররা নুওয়াকোটে ওয়ার্ল্ড ভিশন ইন্টারন্যাশনালের নেপাল কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে।  জানা গেছে যে, তিন জনের একটি দল বিদুর পৌরসভা-৪ এর বাত্তার এলাকায় ওয়ার্ল্ড ভিশন কার্যালয় চত্বরে পার্ক করা একটি গাড়ীতে আগুন লাগিয়ে দেয়।  অফিসের নিরাপত্তারক্ষী তুল বাহাদুর পাকোয়ারেল বলেন, তিন জন অজ্ঞাতনামা সামনের গেট দিয়ে অফিসে প্রবেশ করে এবং গাড়ির আগুন ধরিয়ে দেয়ার আগে তাকে হুমকি দেয়, স্থান ত্যাগের পূর্বে তারা নিজেদের চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন মাওবাদী ক্যাডার হিসেবে পরিচয় দেয়।  পাকোয়ারেল আরও বলেন, যদি সে কোন গোলমাল করে তবে তাকে হত্যা করার হুমকি দিয়েছিল তারা।  স্থানীয় শিব প্রসাদ অধিকারী বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার আগ পর্যন্ত গাড়ীর ইঞ্জিন ৪৫ মিনিট ধরে জ্বলছিল।  ভিতরে মানুষ থাকা অবস্থায় ভবনে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।  ঘটনার ১ ঘণ্টা পর ভবনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলা থেকে লোকজনকে জীবিত অবস্থায় পুলিশ ও প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে।  চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন মাওবাদী’র নেতা এ হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেনি, নেতৃবৃন্দ অবশ্য হামলার পেছনে কারণ ব্যাখ্যা করতে অস্বীকারও করেন।

সূত্রঃ  https://thehimalayantimes.com/nepal/chand-led-cpn-maoist-cadres-attack-world-visons-nuwakot-office/

নেপালে টেলিযোগাযোগ কোম্পানির পাঁচটি টাওয়ারে মাওবাদীদের অগ্নিসংযোগ

গত শনিবার নেপালের একটি মাওবাদী দলের কর্মীরা সারাদেশে একটি বেসরকারী টেলিযোগাযোগ কোম্পানির পাঁচটি টাওয়ারে অগ্নিসংযোগ করেছে। নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন-মাওবাদী দ্বারা প্রকাশিত কিছু লিফলেট কিছু সাইট থেকে উদ্ধার করা হয়েছে, পুলিশ বলছে- পার্টির সন্দেহভাজন লোকজন টেলিযোগাযোগ কোম্পানিতে একাধিক হামলা করেছে।  নেপাল পুলিশ সদর দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, মাওবাদী ক্যাডারদের অগ্নিসংযোগ করা ৫টি মোবাইল টাওয়ার হচ্ছে- ঝাপা জেলার শিভাসাতাকশি, সাল্যান জেলার খুবিন্দে দাহা, দাং জেলার লক্ষ্মীপুর, গোর্খা জেলার আশ্রাং এবং মোরাং জেলার ইয়াংসিলাতে।  হাজার হাজার টাকা মুল্যের সরঞ্জাম এই অগ্নিসংযোগ হামলায় ধ্বংস হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সম্প্রতি, সরকারকে কর পরিশোধ করতে অস্বীকার করায় মোবাইল কোম্পানি Ncell এর উপর বিভিন্ন দিক থেকে আক্রমণ আসা শুরু হয়েছে যখন টেলিয়াসোনেরা, আজিয়াটা গ্রুপের কাছে ১৪৩ বিলিয়ন রূপি সমপরিমান ১.৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে Ncellকে বিক্রি করেছে।

সূত্রঃ http://www.dnaindia.com/world/report-hardline-maoists-torch-five-towers-of-telecom-company-in-nepal-2222543


নেপালঃ চাঁদ নেতৃত্বাধীন মাওবাদীরা মোবাইল টাওয়ারে অগ্নিসংযোগ করেছে

d28de8af198cb82f588aca8a0c75db45_L

অনূদিতঃ 

গত শনিবার গোর্খা জেলার আস্রাং-৭ এ নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন-মাওবাদীরা Ncell এর একটি মোবাইল টাওয়ারে অগ্নিসংযোগ করেছে।  পার্টির জেলা ইনচার্জ কৃষ্ণ ওয়াগল ‘রিপাবলিকা অনলাইন’কে বলেন যে, প্রাইভেট টেলিযোগাযোগ কোম্পানিটি কর পরিশোধ না করে অবৈধ সম্পদ গড়ে তোলায় তারা ওই মোবাইল টাওয়ারটির স্থাপনায় অগ্নিসংযোগ করেছে।  পুলিশ জানায়, পার্টির ক্যাডাররা পেট্রোল ছিটিয়ে দেয়ার পর জেনারেটরে আগুন লাগিয়ে দেয়।  ওয়াগল বলেন,  কর পরিশোধ করতে রাজি না হওয়ায় কোম্পানীকে ভয়ানক পরিণতি ভোগ করতে হয়েছে।  অগ্নিসংযোগের ফলে VDCতে Ncell এর সেবা সীমানার বাইরে চলে যায়। পুলিশ জানায়, তারা একই ঘটনা এড়াতে নিরাপত্তা বন্দোবস্ত করেছে।

সূত্রঃ http://myrepublica.com/feature-article/story/44117/chand-led-cpn-maoist-sets-ncell-tower-on-fire.html


মাওবাদী ধর্মঘটে অচল নেপাল, গ্রেফতার ১৫০

The Koteshwor-Balkumari road section along the Ring Road in Kathmandu wears a deserted look as the Netra Bikram Chand-led CPN Maoist imposes a bandh against arrest of their cadres, on Thursday, June 9, 2016. Photo: Monica Lohani

অনূদিতঃ 

নেপালে গতকাল নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন-মাওবাদী’র ডাকা বনধে অচল হয়ে পড়ে নেপাল।

নিজ দলের ক্যাডারদের মুক্তির দাবীতে ডাকা এই ধর্মঘট চলাকালীন ১৫০জন মাওবাদীকে গ্রেফতার করে পুলিশ, বিক্ষোভকারীরা এসময় রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে নয়টি পাবলিক বাস ও ট্যাক্সি ভাংচুর করে ও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে।  রাউতাহাতা জেলায় পেট্রোল বোমার আঘাতে একজন ট্রাক চালক আহত হয়েছেন, ধর্মঘটে সরকারী ও বেসরকারী পরিবহন সেবা ফাঁকা হয়ে যায়, স্কুল ও কলেজ ধর্মঘটের কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয়।  রাজধানী অধিকাংশ স্থানের মার্কেট ও দোকানের শাটার সকাল থেকেই বন্ধ থাকে।  কাঠমান্ডু মেট্রোপলিটন পুলিশ সার্কেলের তথ্য অনুযায়ী কাঠমান্ডু, ভক্তপুরে এবং ললিতপুর থেকে ৬২ বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়।  হরতাল জোরদার করতে চেষ্টা করার সময় সারলাহি, কাস্কি, কালিকোট, সুন্সারি, বাঙ্কে এবং চিতওয়ান জেলা থেকে প্রায় ৯০ জন আন্দোলনকারীকে গ্রেফতার করা হয়।  এ সময় কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্যে রাজধানীর রাস্তায় নিরাপত্তা কর্মীদের একটি বড় সংখ্যা মোতায়েন করা হয়।

সূত্রঃ http://www.tribuneindia.com/news/world/maoist-strike-cripples-nepal-150-arrested/249487.html


নেপালঃ চাঁদ নেতৃত্বাধীন মাওবাদীরা সশস্ত্র সংগ্রাম শুরু করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে

2db76249dda33d044a4eb67d2d29e5a5_L

অনূদিতঃ

দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা, আইন প্রণেতারা বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে সিপিএন (মাওবাদী) 

গত সোমবার নেত্র বিক্রম চাঁদ নেতৃত্বাধীন সিপিএন(মাওবাদী) নেতৃত্ব সশস্ত্র বিদ্রোহ শুরু করার বিষয়ে সতর্কতা দিয়েছে।  গতকাল এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে, জনকপুর ব্যুরো ইনচার্জ ওমপ্রকাশ দলের পাঁচ দফা ভবিষ্যত প্রতিবাদ কর্মসূচি জনগণের কাছে তুলে ধরেন।  চাঁদ-নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ তরাই-মাধেস জনগণের সচেতনতায় প্রতিবাদী প্রচারণার পরিকল্পনা নিয়েছে।

NGO এবং INGOs বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া, তাদের ক্যাডারদের গ্রেফতারের বিরুদ্ধে সাধারণ ধর্মঘট, জাতীয় ও দুর্নীতির প্রতিবাদে জনগনের সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যেই তারা এই প্রতিবাদী কর্মসূচী নিয়েছেন বলে ওমপ্রকাশ জানিয়েছেন।  “পার্টি দৃঢ়ভাবে সংসদীয় ব্যবস্থার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে এবং এটি যে কোনো সময়ে সশস্ত্র বিদ্রোহ শুরু করবে” বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।  “আমরা যখন সংসদীয় ব্যবস্থার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছি, সরকার স্পষ্টত আমাদের দমন করবে, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে আমাদের অস্ত্র তুলে নিতে প্ররোচনা দিচ্ছে” প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়।

তিনি নেপালের রিপাবলিকা অনলাইনকে অবহিত করেন যে, “গত ২৮ এবং ২৯শে মে তারিখে ধানুশা, মাহোত্তারি, সারলাহি, সিরাহা, সাপ্তারি এবং সিন্ধুলিতে পার্টি তার ক্যাডারদের জন্য একটি অভিযোজন কর্মসূচি চালু করেছে। ” তিনি এর সাথে যোগ করে বলেন, পার্টির চেয়ারম্যান চাঁদ ক্যাডারদের জন্যে অস্ত্র বিক্ষোভকে তুলে ধরবেন।  পার্টি প্রতিটি জেলার পিপলস আর্মি গঠন করছে, যার প্রথমেই দুর্নীতিবাজদের লক্ষ্য করা হবে। তিনি আরো বলেন, “আমরা সে সকল দুর্নীতিগ্রস্ত সরকারি কর্মকর্তা, নেতা ও সংসদ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ শুরু করব”।

সূত্রঃ http://www.myrepublica.com/feature-article/story/43323/chand-led-cpn-maoist-to-take-action-against-corrupt-officials-lawmakers.html


নেপালের ৩টি বিপ্লবী মাওবাদী পার্টি’র যৌথ বিবৃতি

revolution

Sharpen the ideological struggle against the revisionists–the bourgeois.

(On Thursday, May 19, Three Maoist Parties–Nepal Communist Party (Revolutionary Maoist) led by Com. Mohan Baidhya ‘Kiran’, CPN Maoist led by Com. Netra Bikram Chanda ‘Biplav’ and Communist Nucleus Nepal , led by Hemant Prakash Oli ‘Sudarshan’ have published a joint statement regarding the so-called Maoist unity between UCPN(Maoist) and other small factions. One of them there is a faction led by Ram Bahadur Thapa ‘Badal’ that just split with the Maoist party led by Mohan Baidhya ‘Kiran”. This ‘new unified party’ named as ‘Nepal Communist Party Maoist Center’ has accepted pluralism, multi party system and the current reactionary constitution of Nepal.

It is a matter of surprise that these revisionists have declared themselves as the revolutionaries and their so-called Maoist center as the center of Nepalese Maoists. Not only this they have made Prachanda the renegade as their ringleader. In fact, it is not a party unity rather than it is a gathering of rightist opportunists, who have already lost revolutionary spirit, revolutionary ground and want to take part in the reactionary system. Indeed, they are trapped in a design, designed by the imperialist and expansionist forces. Just they are following the direction of their master.

Realizing the confusion produced by these revisionists the revolutionary three parties have made the situation clear through the Press statement. They have urged the revolutionary cadres and oppressed people not to be confused and stand firmly on the side of Marxism-Leninism-Maoism and New Democratic Revolution. The revolutionary parties also have urge to wage ideological struggle against the revisionists. Here is the full text of the Press Statement.)

Joint Statement on so-called Maoist unification

Today in the leadership of UCPN Maoist, some opportunistic groups of so-called Maoists have made a noise and whimper of party unity-a polluted wind. This unity between the rightist groups has produced a lot of confusion among the oppressed people and it is also dangerous for the struggle of the national sovereignty, people’s livelihood , people’s democracy and revolutionary movement. It is not a party unity, but a liaison between the rightist groups and we must go ahead sharpening the ideological struggle against this liaison. In the light of Marxism-Leninism -Maoism, we are dedicated for the New Democratic Revolution and to move ahead in the way to Socialism and Communism. To achieve this goal, it is necessary for the polarization and unification between the true revolutionaries. Therefore we urge the revolutionary people, our well wishers, and true Communists, not to be confused on such false unity and the noise and polluted wind of so-called Maoist unification, and we specially urge to stand firmly on the side of Revolutionary Trend of Nepalese Communist Movement.

May,19, 2016

Kiran, (Chairman, Revolutionary Maoist)

Biplav, ( General Secretary, CPN Maoist)

Hemanta Prakash Oli, Sudarshan(Communist Nucleus, Nepal)

Via  The Next Front